শিরোনাম
প্রচ্ছদ / জাতীয় / দীর্ঘ তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছি-এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ

দীর্ঘ তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছি-এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ

দীর্ঘ তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছি-এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ

॥ নন্দন দেবনাথ ॥ সংবাদপত্র ও সাংবাদিকতায় বিশেষ অবদান রাখায় পার্বত্য অঞ্চলের চারণ সাংবাদিক ও পার্বত্য অঞ্চলের সর্বপ্রথম দৈনিক সংবাদপত্র দৈনিক গিরিদর্পন সম্পাদক এ,কে,এম মকছুদ আহমেদকে গুনীজন সম্মাননা প্রদান করেছেন খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ। গতকাল খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলা পরিষদের উদ্যোগে খাগড়াছড়ি টাউন হলে এই গুনীজন সম্মাননা ক্রেষ্ট হাতে তুলে দেন খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী। সংবর্ধনার জবাবে দৈনিক গিরিদর্পন সম্পাদক এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের যে ভালোবাসা আমি পেয়েছি তা আমার আজীবন পাথেয় হয়ে থাকবে। দীর্ঘ তিন যুগেরও বেশী সময় ধরে পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কল্যাণে কাজ করে গেছি। মানুষের সুখ, দুঃখ গুলো সারা বিশ্বের মানুষের কাছে তুলে ধরার ব্রত নিয়ে পাহাড়ে পাহাড়ে হেটে বেড়িয়েছি। তিনি বলেন, সেই কষ্টের দিন গুলোর কথা আজো আমাকে মনে করিয়ে দেয়। সেই দিন গুলোর কষ্টের ফসল হিসাবে আজ এই সম্মাননা।  তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের সমস্যা নিরসনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শান্তি চুক্তি সম্পাদন করলেও শান্তি চুক্তির বাস্তবায়নের দৈনিক গিরিদর্পণের অবদান অনেক বেশী। তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের সমস্যার গুলোকে চিহ্নিত করে দীর্ঘ ৩৩ টি বছর হাটিহাটি  পা পা করে বস্তুনিষ্ট সংবাদ পরিবেশন করে আসছি এখনো অব্যহত রেখেছি। পাহাড়ের সমস্যা গুলোকে পত্রিকার মাধ্যমে প্রকাশ করেছি বলেই আজ পার্বত্য শান্তি চুক্তি সম্পাদিত হয়েছে। তিনি বলেন, খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদ আজ আমার কাজের স্বীকৃতি প্রদান করেছে এই জন্য আমি খাগড়াছড়ি জেলা পরিষদকে ধন্যবাদ জানায়।
তিনি বলেন, পার্বত্য অঞ্চলের একমাত্র মুখপাত্র হিসাবে দৈনিক গিরিদর্পন আজ পার্বত্য মানুষের ভালোবাসায় সিক্ত হয়ে আছে। দীর্ঘ ৩৩ বছর এই পার্বত্য অঞ্চলের জন্য কাজ করতে গিয়ে অনেক কবি, সাহিত্যিক, প্রবন্ধকার এবং অনেক সাংবাদিককে পথ দেখিযেছি। সেই দেখানো পথে আজ অনেকে সহকর্মী তাদের নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করেছে। এটা আমার জন্য অনেক বড় পাওয়ায়। তিনি আগামী দিন গুলোতেও পার্বত্য অঞ্চলের মানুষের কল্যাণে কাজ করে যাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন।
এ সময় অন্যান্যদের মধ্যে খাগড়াছড়ি পুলিশ সুপার মজিদ আলী, খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের প্রতিনিধি সদর জোন কমান্ডার লে.কর্নেল হাসান মাহমুদ, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা-হাবিবুর রহমান, নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুর রহমান তরফদার, পাজেপ সদস্য মো: জাহেদুল আলম, রে¤্রাচাই চৌধুরী, মংশেইপ্রু চৌধুরী অপু, এড. আশুতোষ চাকমা, নির্মলেন্দু চৌধুরী, পাজেপ মহিলা সদস্য নিগার সুলতানা, শতরূপা চাকমা, সিভিল সার্জন নিশীত নন্দী মজুমদার, উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান বিউটি রানী ত্রিপুরাসহ জনপ্রতিনিধি ও বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
এ সম্বর্ধনা অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবে সাবেক সাধারণ সম্পাদক দৈনিক ইত্তেফাক প্রতিনিধি তরুন কুমার ভট্টচার্য্য। অনুষ্ঠানে খাগড়াছড়ি পার্বত্য জেলার বিভিন্ন প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক্স মিডিয়ার সংবাদকর্মী এবং গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …