শিরোনাম
প্রচ্ছদ / রাঙ্গামাটি / রাঙ্গামাটির ৪৯টি ইউনিয়নে সুষ্ঠ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করা না হলে ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচন বর্জনের হুশিয়ারী জেলা আওয়ামীলীগের

রাঙ্গামাটির ৪৯টি ইউনিয়নে সুষ্ঠ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করা না হলে ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচন বর্জনের হুশিয়ারী জেলা আওয়ামীলীগের

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ রাঙ্গামাটির জেলার ৪৯টি ইউনিয়নের পাহাড়ী এলাকায় সুষ্ঠ নির্বাচনের পরিবেশ সৃষ্টি করা না হলে আগামী ৪জুন অনুষ্ঠিতব্য ৬ষ্ঠ ধাপের ইউপি নির্বাচন বর্জনের হুশিয়ারী দিয়েছে রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ। আজ শুক্রবার দুপুরে আওয়ামীলীগের দলীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে দলের এই সিদ্ধান্তের কথা জানান, রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি ও পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদ সদস্য মাহবুবুর রহমান। এসময় জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক হাজী মোঃ মুছা মাতব্বর, আওয়ামলীগ নেতা রুহুল আমিন, অভয় প্রকাশ চাকমা, কামাল উদ্দিনসহ দলের সিনিয়র নেতৃবৃন্দ ও বেশ কয়েকজন ইউপি চেয়ারম্যান প্রার্থী উপস্থিত ছিলেন। সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলার ৪৯টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে আওয়ামীলীগ ৪৬টি ইউনিয়নে দলীয় মনোনয়ন দেয়া হলেও সন্ত্রাসীদের ভয়ভীতি ও প্রাণ নাশের হুমকিতে দলীয় অনেক চেয়ারম্যান প্রার্থী নিরাপত্তাহীনতায় এলাকা ছেড়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন। কিন্তু ৪টি ইউনিয়ন জুরাছড়ি উপজেলার ২নং বনযোগী ছড়া ইউনিয়ন, সদর উপজেলার কুতুকছড়ি ইউনিয়ন, নানিয়ারচর উপজেলার ঘিরাছড়ি ইউনিয়ন ও কাউখালী উপজেলার ফটিকছড়ি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের কোন প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল করতে পারেনি।
সংবাদ সম্মেলনে আরো জানানো হয়, সন্ত্রাসীদের অব্যাহত ভয়ভীতি প্রদর্শন ও হুমকির কারণে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থীগণ নির্বাচনী প্রচারণায় অংশগ্রহন করতে পারবেনা এবং নির্বাচনী পোলিং এজেন্ট নিয়োগ দিতে পারবেনা। পাহাড়ের সাধারণ ভোটার ও নির্বাচনী কর্মকর্তারাও সন্ত্রাসীদের ভয়ে নিরব ভূমিকা পালন করছে। পার্বত্য এলাকা থেকে অবৈধ অস্ত্র উদ্ধার ও সন্ত্রাসীদের গ্রেফতার ছাড়া রাঙ্গামাটিতে কখনও সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ ইউপি নির্বাচন সম্ভব নয়। এই অবস্থায় রাঙ্গামাটি জেলা আওয়ামীলীগ দলীয় প্রার্থীদের প্রতি সশস্ত্র সন্ত্রাসীদের ভয়ভীতি প্রদর্শন, প্রাণ নাশের হুমকি ও নিপিড়ন নির্যাতনের প্রতিবাদে নির্বাচন বর্জন করতে বাধ্য হবে।
উল্লেখ্য, ১৫ মার্চ ঘোষিত তফসিলে রাঙ্গামাটির ১০ উপজেলার ৪৯টি ইউনিয়নের পরিষদের ভোট ২৩ এপ্রিল হওয়ার কথা থাকলেও ওই এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি মূল্যায়ন করে বর্তমানে সেখানে নির্বাচনের সুষ্ঠু পরিবেশ নেই উল্লেখ করে এসব ইউপির নির্বাচন পিছিয়ে ষষ্ঠ ধাপে অন্তর্ভূক্ত করেছিল। পরিবর্তিত তফসিল অনুযায়ী এসব ইউপিতে ভোট হবে আগামী ৪জুন।

পড়ে দেখুন

তৃণমূল সাংবাদিকতায় অবদানের জন্য বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন এ কে এম মকছুদ আহমেদ

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ সমাজের সুষ্ঠু বিকাশে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার গুরুত্ব তুলে ধরে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী …