শিরোনাম
প্রচ্ছদ / রাঙ্গামাটি / পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও জেলা পরিষদের দৃষ্টি আকর্ষণ

পার্বত্য প্রতিমন্ত্রী ও জেলা পরিষদের দৃষ্টি আকর্ষণ

॥ এ,কে,এম মকছুদ আহমেদ ॥ দেশের প্রত্যেকটা জেলা শহরে এবং পৌরসভায় পানি সরবরাহ করে থাকে সিটি কর্পোরেশন এবং পৌরসভা। কিন্তু রাঙ্গামাটি জেলা শহরে ব্যতিক্রম। যেহেতু পার্বত্য এলাকার দোহায় দিয়ে নিয়মবর্হিভূত অনেক কাজ এবং অফিস ও চলে।
এই পর্যটন শহর রাঙ্গামাটিতে জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ পানি সরবরাহে নিয়জিত জনস্বাস্থ্য প্রকৌশল বিভাগ সম্পূর্ণ সরকারী হলেও পার্বত্য চুক্তি ১৯৯৭ অনুযায়ী স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের নিকট হস্তান্তরিত বিষয় বিধায় জেলা পরিষদই জনস্বাস্থ্য অধিদপ্তর নিয়ন্ত্রণ করে থাকে। যার বাৎসরিক থোক বরাদ্দ অত্যন্ত কম। যার ফলে ২২/২৩ হস্তান্তরিত বিভাগ এর প্রয়োজনীয় উন্নয়ণ ব্যয় সম্ভব হয় না। এতে করে অনেক কাজই সঠিক ভাবে চলে না।
নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিষের পানি বিদ্যুৎ অত্যাবশ্যকীয় জিনিস। পানি বিদ্যু ঠিকভাবে এবং সময়মতো পাওয়া না গেলে জনগন উত্তেজিত হয়ে উঠে। বিশেষ করে ক্ষরা মৌসুমে যখন হ্রদের পানির স্থর কমে যায় তখন বিদ্যুৎ উৎপাদন হ্রাস পায় এবং পানি সরবরাহ ঠিক থাকে না।
কিন্তু বর্তমানে হ্রদের পানি বৃদ্ধি পাওয়ার সাথে সাথে বিদ্যুৎ উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়েছে বলে লোডশেডিং কমে এসেছে যদিও বা তারাবীর সময়ে মাঝে মধ্যে লোডশেডিং হচ্ছে।
কিন্তু পানি সরবরাহ পদ্ধতির উন্নতি হয়নি।
সব চাএত অসহনীয় বিষয় হলো য়নিয়মিত মধ্যরাতে পানি দেয়া। এতে জনগন অত্যন্ত বিরক্ত বোধ করে।
গত শবেবরাত রাতে ১ টা থেকে রাত ৩ টা পর্যন্ত পানি সরবরাহ করেছে। মানুষ আল্লাহর এবাদত করবে নাকি পানি নিবে। অত্যন্ত জরুরী। গত সপ্তাহে রোজার মধ্যে প্রায় সময় রাত ১০ টা ১১ টা ১২টা পানি দেয়া শুরু করে। প্রায় সময় পানির প্রেসার থাকে না কার্যত ২/১ দিনের বেলায় পানি দিয়ে থাকে তাও পানির প্রেসার নেই।
গত বৃহস্পতিবার ভোর রাত ৩ টার সময় পানি দেয়া শুরু করলো সাহরীর খাওয়া রেখে অথবা তারাহুড়ো করে পানির জন্য গিয়ে দেখে পানি চলে গেছে। এধরনের রসিকতা অত্যন্ত নিন্দনীয় ব্যাপার। পর্যাপ্ত পানি দিয়ে দিনের বেলায় পানি সরবরাহ দেয়ার অনুরোধ রাখছি।
অসহনীয় পানি সরবরাহের ফলে অনেকেই পানি সরবরাহের লাইন বন্ধ করে দিয়ে ব্যক্তিগত ভাবে গভীর নলকুপ বসিয়েছে। গভীর নলকুপের খারাপ প্রতিক্রিয়া রয়েছে। এর মধ্যে পানির ভূগর্ভস্থ লেয়ার নেমে যায় অন্যদিকে পারহাড় ধ্বসের দিকে ঝুঁকে যায। ফলে শহরের অনেক ধ্বসের সৃষ্টি হচ্ছে।
পানি সরবরাহ প্রকল্পের বড় তহবিলের প্রয়োজনীয় ইউএনডিপি অথবা অন্য কোন দাতা সংস্থার মাধ্যমে পানি সমস্যা সমাধানের জন্য প্রকল্প নেয়া দরকার।
রাঙ্গামাটি শহরের পানি সরবরাহ নিশ্চিত করার জন্য পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী এবং রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। পানি সমস্যা সমাধানে জরুরী ভিত্তিতে ব্যবস্থা নিন। নামকাওয়াস্তে উন্নয়নের নামে বাহবা নেয়া উচিত নয়।
জনগনের কল্যাণে সৃষ্টি এই পরিষদ এবং মন্ত্রনালয়ের উচিত জনগনের কল্যান নিশ্চিত করা।

পড়ে দেখুন

রাঙ্গামাটি সরকারি শিশু পরিবারে বার্ষিক ক্রীড়া, সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ ও পিঠা উৎসব

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ প্রতিটি শিশুই আগামী দিনের ভবিষ্যৎ। তাই এই শিশু পরিবার থেকে যাতে …