শিরোনাম
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / লন্ডনে বিবিসি বাংলার কার্যালয় ঘেরাও

লন্ডনে বিবিসি বাংলার কার্যালয় ঘেরাও

বাংলাদেশে সরকার উৎখাত ষড়যন্ত্রের অভিযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা ইসরাইলি নাগরিক মেন্দি এন সাফাদির ‘মিথ্যা’ দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পুত্র ও তার তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের নামে প্রচারিত খবরের প্রতিবাদে লন্ডনে বিবিসি বাংলার কার্যলয় ঘেরাও করেছে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগ। সোমবার (০৬ জুন) স্থানীয় সময় বেলা ২টা থেকে সাড়ে ৩টা পর্যন্ত ঘেরাও করে রাখা হয়। এ সময় কার্যালয়ের সামনে বিক্ষোভও করেছেন আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা। বিভিন্ন ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে বিবিসি বাংলা’র সংশ্লিষ্ট রিপোর্টারকে অব্যাহতি, ভুল সংবাদের সংশোধনী ও দুঃখ প্রকাশের দাবি জানান তারা। ঘেরাও কর্মসূচিতে যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সঙ্গে বর্তমানে লন্ডন সফররত জামালপুর-৪ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য মুরাদ হাসান, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের সভাপতি সুলতান মোহাম্মদ শরীফ, সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ সাজিদুর রহমান ফারুক, আওয়ামী লীগের সহসভাপতি শামসুদ্দিন চৌধুরী মাস্টার, যুগ্মসম্পাদক আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক আহাদ চৌধুরী, স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সায়েদ আহমদ সাদ, যুক্তরাজ্য মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি হোসনে আরা মতিন, সাধারণ সম্পাদক মুসলিমা শামস বন্নি, যুবলীগের যুগ্মসাধারণ সম্পাদক জামাল খান, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ময়নুল ইসলাম, তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক সুশান্ত দাশ গুপ্ত, যুব মহিলা লীগের সভাপতি পলিন মাঝি, স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা মুসলেহ জাহিন এনাম, ছাত্রলীগের দফতর সম্পাদক ড্যানিয়েল আহমদসহ অন্যরা অংশ নেন। নেতাকর্মীদের দাবি, জয়ের সঙ্গে তার বৈঠক হয়েছে সাফাদি’র এমন ‘মিথ্যা’ দাবি গ্রহণ করে জয়ের কোনো মন্তব্য না নিয়েই বিবিসি বাংলা গত ২৮ মে সংবাদ প্রচার করে। এ নিয়ে রাজনৈতিক অঙ্গনে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়। যার প্রতিবাদ জানাতেই তারা ঘেরাও কর্মসূচি পালন করেন।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …