শিরোনাম
প্রচ্ছদ / রাঙ্গামাটি / রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা

রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের মাসিক সভা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ পার্বত্য শান্তিচুক্তির ফলে এ জেলার জনগণের কল্যাণ ও উন্নয়নের স্বার্থে পার্বত্য জেলা পরিষদ গঠিত হয়েছে। এর ফলে পার্বত্য জেলা পরিষদে গুরুত্বপূর্ণ এবং জনকল্যাণমূলক প্রতিষ্ঠানগুলো হস্তান্তরিত হয়েছে মানুষের উন্নয়ন সাধনের জন্য। তাই পরিষদ ও হস্তান্তরিত বিভাগের সকল কর্মকর্তাদের উপর অর্পিত দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করার আহবান জানিয়েছেন রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বৃষ কেতু চাকমা ।
সোমবার (১৮জুলাই) সকালে রাঙ্গামাটি পর্যটন কমপ্লেক্স সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত পরিষদের জুলাই ২০১৬ খ্রিঃ মাসের মাসিক সভায় সভাপতির বক্তব্যে তিনি এ আহ্বান জানান।
রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের নির্বাহী কর্মকর্তা ছাদেক আহমদ এর পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় রাঙ্গামাটি পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্যাগণ ও হস্তান্তরিত বিভাগের কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।
সভায় স্বাস্থ্য বিভাগের সিভিল সার্জন ডাঃ ¯েœহ কান্তি চাকমা বলেন, গত ১৬ জুলাই সারা দেশের ন্যায় রাঙ্গামাটির ১০টি উপজেলায় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইনের মাধ্যমে ৬মাস থেকে ৫বছরের সকল শিশুদের ভিটামিন এ প্লাস ক্যাপসুল খাওয়ানো হয়েছে । এছাড়া জুরাছড়ি, বিলাইছড়ি, কাউখালী ও বরকল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সগুলো মেরামতের জন্য তিনি স্বাস্থ্য প্রকৌশল অধিদপ্তরের হস্তক্ষেপ কামনা করেন।
জেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা জানান, সরকার ঘোষিত সকল স্কুলের শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক শাস্তি দেওয়া বন্ধে স্কুলে স্কুলে বিভিন্ন প্লে কার্ড ও পোস্টার টাঙ্গানোর উদ্যোগ নেয়া হয়েছে এবং নতুন-পুরাতন শিক্ষক-শিক্ষিকা প্রত্যেকের কাছ থেকে শিক্ষার্থীদের শারীরিক ও মানসিক শাস্তি না দেওয়ার অঙ্গীকারনামা নেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। তিনি বলেন, বাল্য বিবাহ রোধে জেলার ১০টি উপজেলায় গণসচেতনতা মূলক নাটক উপস্থাপন করা হবে।
কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগের উপ-পরিচালক বলেন, পূর্বাঞ্চলীয় সমন্বিত কৃষি প্রকল্প জুন ২০১৬তে সমাপ্ত হবে। প্রকল্পের আওতায় ১০উপজেলায় ২৭০টি প্রযুক্তি ভিত্তিক কৃষি প্রদর্শনী প্লট গড়ে তোলা হয়। এছাড়া জেলা পরিষদের অর্থায়নে স্ট্রবেরী, চা ও কফি চাষ প্রকল্প যথারীতি চলছে।
মাধ্যমিক শিক্ষা বিভাগের শিক্ষা কর্মকর্তা বলেন, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে শিক্ষার্থীদের বিতর্ক ও রচনা প্রতিযোগিতা আয়োজনে একটি বাজেট পরিষদে উপস্থাপন করা হয়েছে।
জেলা সমাজ সেবা বিভাগের কর্মকর্তা বলেন, সমাজসেবা কর্তৃক তালিকাভুক্তদের মাঝে ক্ষুদ্রঋণ, বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, প্রতিবন্ধী শিক্ষা ভাতা প্রদান কার্যক্রম পরিচালিত হচ্ছে।
জেলা প্রাণীসম্পদ কর্মকর্তা জানান, বর্তমানে উপজেলাওয়ারী ভেড়া পালনের উপর প্রশিক্ষণ প্রদানের পাশাপাশি খামারীদের ৬টি করে ভেড়া প্রদান করা হচ্ছে। জেলা পরিষদ কর্তৃক খামারীদের ভেড়া পালনের জন্য ভেড়া রাখার ঘর নির্মাণের আর্থিক সহযোগিতা পেলে ইউনিয়ন পর্যায়ে ভেড়া প্রদান করা হবে।
যুব উন্নয়ন অধিদপ্তরের কর্মকর্তা জানান, বর্তমানে কম্পিউটারে ৪০জন, পোশাক তৈরিতে ৪০ এবং গবাদি পশু-হাঁস-মুরগী পালনের উপর বেকার যুবকদের প্রশিক্ষণ প্রদান করা হচ্ছে।

পড়ে দেখুন

তৃণমূল সাংবাদিকতায় অবদানের জন্য বসুন্ধরা মিডিয়া অ্যাওয়ার্ড পেলেন এ কে এম মকছুদ আহমেদ

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ সমাজের সুষ্ঠু বিকাশে অনুসন্ধানী সাংবাদিকতার গুরুত্ব তুলে ধরে তথ্য ও সম্প্রচারমন্ত্রী …