শিরোনাম
প্রচ্ছদ / জাতীয় / সংসদ এলাকায় নিরাপত্তা আরো জোরদার করার নির্দেশ

সংসদ এলাকায় নিরাপত্তা আরো জোরদার করার নির্দেশ

সাম্প্রতিক সন্ত্রাসী হামলা নিয়ে শঙ্কিত জাতীয় সংসদ এলাকায় অবস্থানকারীরা। বিশেষ করে গুলশান আর্টিজান বেকারি রেস্তোরাঁ এবং ঈদের দিন কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার পর উদ্বিগ্ন সংসদ সদস্য ও সংসদের কর্মকর্তারা।

আর এজন্য সংসদ এলাকায় নিরাপত্তা ব্যবস্থাকে আরো জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া। প্রয়োজনে ফোর্স বৃদ্ধি করারও নির্দেশ দেন তিনি।

নিরাপত্তা ইস্যু নিয়ে ডেপুটি স্পিকার মো. ফজলে রাব্বী মিয়া বলেন, ‘জাতীয় সংসদের মতো গুরুত্বপূর্ণ এলাকায় বর্তমানে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা নেই। আমি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে বলেছি, প্রয়োজনে ফোর্স বাড়িয়ে আরো জোরালো নিরাপত্তার ব্যবস্থা করতে। সাম্প্রতিকালে যে সকল ঘটনা ঘটেছে, তাতে নিরাপত্তা জোরদার করতেই হবে’।

বুধবার (১৩ জুলাই) সকালে ডেপুটি স্পিকার সংসদ ভবন এলাকা পরিদর্শন করেন। সংসদ ভবনের প্রতিটি চেকপোস্ট তিনি সরেজমিনে পরিদর্শন করেন। সেখানে কর্তব্যরত নিরাপত্তাকর্মীদের খোঁজ-খবর নেন। এ সময় জাতীয় সংসদের সিনিয়র সচিব ড. মো আব্দুল রব হাওলাদার, সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস কমোডর সৈয়দ আরিফুল ইসলাম, ডেপুটি সার্জেন্ট অ্যাট আর্মস পুলিশ সুপার মো. সেলিম খান ও অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

পরিদর্শনকালে ডেপুটি স্পিকার সংসদ ভবনে অননুমোদিত কোন ব্যাক্তি বা গাড়ি যাতে প্রবেশ করতে না পারে সে বিষয়ে কর্তব্যরত নিরাপত্তাকর্মীদের সতর্ক থাকার নির্দেশ দেন। তিনি নিজে দাঁড়িয়ে থেকে কয়েকজন দর্শনার্থীর প্রবেশের বৈধতা যাচাই করেন এবং সংসদ সচিবালয়ের একজন কর্মকর্তার আইডি কার্ড প্রদর্শিত অবস্থায় না থাকায় তাকে ভর্ৎসনা করেন।

ভিভিআইপিদের প্রবেশপথে (গলফ-৮) নিরাপত্তাকর্মীর সংখ্যা আরো বৃদ্ধি করতে সিনিয়র সচিব ও সার্জেন্ট অ্যাট আর্মসকে নির্দেশ দেন ডেপুটি স্পিকার। সকল চেকপোস্টের প্রবেশপথের গতিরোধক বাঁশকলগুলোকে ইলেক্ট্রিক করার পরামর্শও দেন তিনি।

চেকপোস্টগুলোতে বিজয় সরণির ৬নং গেটের মতো গাড়ি চেক-আপে বিশেষ ক্যামেরা স্থাপনের পরামর্শ দেন তিনি। টয়লেটসহ নিরাপত্তাকর্মীদের কাজের অনুকূল অন্যান্য সুযোগ সুবিধা বৃদ্ধির জন্য সিনিয়র সচিবকে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও পরামর্শ দেন ডেপুটি স্পিকার।

নিরাপত্তাকর্মীদের জন্য পর্যাপ্ত বুলেটপ্রুফ জ্যাকেট ও হেলমেট সরবরাহ করার প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণেরও নির্দেশ দেন তিনি।

পড়ে দেখুন

চট্টগ্রাম : প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেল ৫৮৭ পরিবার 

চট্টগ্রাম ব্যুরো :: প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক চট্টগ্রাম জেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন (৩য় পর্যায়) ৫৮৭টি পরিবারকে জমিসহ …