শিরোনাম
প্রচ্ছদ / খাগড়াছড়ি / খাগড়াছড়িতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

খাগড়াছড়িতে ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীতে র‌্যালী ও আলোচনা সভা

॥ লিটন ভট্টাচার্য্য রানা, খাগড়াছড়ি ॥ কংসনামক এক অত্যাচারী রাজার থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য শ্রীকৃষ্ণ যেমন জন্ম হয়েছিল তেমনী বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের হাত থেকে রক্ষা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার জন্ম বলে মন্তব্য করেছেন খাগড়াছড়ি সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি।
বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) বিকেল চার ঘটিকার সময় নানা আয়োজনে খাগড়াছড়িতে উদযাপিত হিন্দু ধর্মাবলম্বীদের মহাবতার ভগবান শ্রীকৃষ্ণের জন্মাষ্টমীতে র‌্যালী উত্তর আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।
এর আগে খাগড়াছড়ি লক্ষী নারায়ণ মন্দির প্রাঙ্গনে জাতীয় ও ধর্মীয় পতাকা উত্তোলন শেষে বাংলাদেশ কৃষ্ণ জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের খাগড়াছড়ি জেলা কমিটির আহবায়ক তপন কান্তি দে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় বিশেষ অতিথি হিসাবে বক্তব্য রাখেন, পার্বত্য  জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান কংজরী চৌধুরী, জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহিদুজ্জামান, পুলিশ সুপার মজিদ আলী বিপিএম(সেবা)সদও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান চঞ্চুমণি চাকমা, জেলা পরিষদ সদস্য নির্মলেন্দু চৌধুরী, লক্ষèী নারায়ণ মন্দিরের পরিচালনা কমিটির সাধারণ সম্পাদক নির্মল দেব, সনাতন সমাজ কল্যাণ পরিষদে সভাপতি এডভোকেট বিধান কানুনগো, জঙ্গী ও সন্ত্রাসবাদ নির্মূল কমিটির জেলার সদস্য সচিব মোঃ শানে আলম, বাংলাদেশ কৃষ্ণ জন্মাষ্টমী উদযাপন পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটি সাংগঠনিক সম্পাদক রনজিত দে, সনাতন ছাত্র-যুব পরিষদ জেলা কমিটি সভাপতি স্বপন ভট্টাচার্য্য প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে খাগড়াছড়ি সংসদ সদস্য কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা এমপি আরো বলেন, কংসনামক এক অত্যাচারী রাজার অত্যাচার থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য  দেবতারা ব্রহ্মার শরণাপন্ন হলে, বসুদেবের ঔরসে দেবকীর অষ্টম গর্ভে কৃষ্ণের জন্ম হয়েছিল। শ্রীকৃষ্ণ শব্দের মানে হলো যে সবাইকে আকর্ষণ করে। পরম ব্রহ্ম সব কিছুকে আকর্ষণ করে। এখন বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের হাত থেকে রক্ষা করতে হলে আমাদের প্রয়োজন সকল সম্প্রদায়ের উপর বিশ্বাস সৃষ্টি করা। বিশ্বাস মানে একে অপরের প্রতি ভালোবাসা জাগানো। ভালোবাসা থাকলে সে মানুষ কখোন মানুষ খুন করতে পারেনা। সে হচ্ছে প্রকৃত মানুষ মানে হুস আছে।
আলোচনা সভা শেষে খাগড়াছড়ি লক্ষী নারায়ণ মন্দির প্রাঙ্গনে থেকে এক বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা বের করা হয়। শোভাযাত্রাটি শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে উৎসব অঙ্গণে গিয়ে শেষ হয়। এই বর্ণাঢ্য শোভা যাত্রায় হাজারো ভক্তরা অংশ গ্রহন করেন।

পড়ে দেখুন

চট্টগ্রাম : প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘর পেল ৫৮৭ পরিবার 

চট্টগ্রাম ব্যুরো :: প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক চট্টগ্রাম জেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীন (৩য় পর্যায়) ৫৮৭টি পরিবারকে জমিসহ …