শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বান্দরবান / পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির বান্দরবান জেলা সভাপতি গ্রেফতার

পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির বান্দরবান জেলা সভাপতি গ্রেফতার

॥ বান্দরবান প্রতিনিধি ॥ পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস) এর বান্দরবান জেলা সভাপতি উ চ মং মার্মাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ, চাঁদাবাজীর মামলায় তাকে গ্রেফতার করা হয়। গত রবিবার বান্দরবানের সুয়ালক এলাকার ব্যবসায়ী আব্দুর করিম সদর থানায় একটি চাঁদাবাজীর মামলা দায়ের করলে সোমবার ভোররাতে শহরের কালাঘাটা এলাকাস্থ বাসায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে বান্দরবান সদর থানা পুলিশ। এদিকে গ্রেফতারের পরপরই উচ মং মার্মাকে গতকাল সোমবার দুপুর বারোটায় আদালতে হাজির করে পুলিশ। অফিসার-ইন-চার্জ, বান্দরবান সদর থানার নেতৃত্বে সঙ্গীয় অফিসার ও ফোর্সসহ বান্দরবান সদর থানা এলাকায় বিশেষ অভিযান ডিউটি পরিচালনা করার সময় গোপন সূত্রের ভিত্তিতে বান্দরবান পৌরসভাধীন কালাঘাটাস্থ বড়–য়ার টেক এলাকা হইতে রাত অনুমান ৩:৩০ ঘটিকায় চাঁদাবাজ মামলার এজাহারনামীয় ৫নং আসামী উচমং মার্মা (৪৭), পিতা-শৈক্যসা মার্মা, মাতা-আপ্রু মে মার্মা, সাং-বাগমারা পাড়া, ৭নং ওয়ার্ড, ২নং কুহালং ইউপি, বর্তমানে-বড়–য়ার টেক, কালাঘাটা, ৩নং ওয়ার্ড, বান্দরবান পৌরসভা, থানা ও জেলা-বান্দরবানকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারকৃত আসামী এবং অন্যান্য এজাহারনামীয় ও অজ্ঞাতনামা আসামীগণ মামলার বাদী আবদুল করিম (৪২) কে গত ২৯ জুলাই ২০১৬ ইং তারিখ ০২:৩০ ঘটিকার সময় ৪নং সুয়ালক ইউপিস্থ আমতলী তঞ্চঙ্গ্যা পাড়া এলাকায় অবৈধভাবে আটক পূর্বক প্রাণে হত্যার ভয় দেখিয়ে চাঁদা দাবী ও আদায় করিয়াছে মর্মে বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন। উক্ত আসামী জেএসএস এর বান্দরবান জেলার সভাপতি। আসামী উচমং মার্মা এবং তাদের সহযোগী অন্যান্য এজাহারনামীয় আসামী ও অজ্ঞাতনামা আসামীরা স্থানীয় নিরপরাধ জনসাধারণ থেকে চাঁদা আদায়সহ জেএসএস এর কর্মকান্ডের সাথে সম্পৃক্ততা আছে মর্মে জানা যায়। আসামী গ্রেফতার করে বিধি মোতাবেক বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। মামলার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য বিজ্ঞ আদালতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য রিমান্ডের আবেদন দাখিল করা হয়েছে। মামলার তদন্ত অব্যাহত আছে। এদিকে গত ১৩ জুন রাতে জেলার রোয়াংছড়ি উপজেলার জামছড়ি নিজ বাসা থেকে অপহরণের শিকার হন সদর উপজেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মং পু মার্মা, ঘটনার পর এই অপহরণ মামলায়ও জেএসএস সভাপতি উ চ মং মার্মাকে আসামি করা হলে তিনি গত ২৬ জুলাই হাইকোর্ট থেকে আগাম জামিন নিয়ে মুক্ত হন।

পড়ে দেখুন

পার্বত্য তিন জেলার পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোতে শিগগিরই এপিবিএন মোতায়েন করার ঘোষণা দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিদেক :: রাঙামাটি: পার্বত্য তিন জেলার পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোতে শিগগিরই এপিবিএন মোতায়েন করার ঘোষণা …