শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বান্দরবান / বান্দরবানের স্মৃতি সৌধের ব্যবস্থা নিয়ে অসন্তুষ্টি

বান্দরবানের স্মৃতি সৌধের ব্যবস্থা নিয়ে অসন্তুষ্টি

॥ সেলিম আহমেদ চৌধুরী ॥  বাংলাদেশ সরকারের মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব এমএ হানান শনিবার ১ দিনের সরকারী সফরে বান্দরবান এসে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধা,প্রশাসনের কর্মকর্তা বৃন্দ সহ জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন নির্মানের স্থান সমুহ পরিদর্শন করে জেলা প্রশসনের সম্মেলন কক্ষে একমত  বিবনিময় সভায় মিলিত হন। মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক দিলীপ কুমার বনিক। বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন মন্ত্রনালয়ের যুগ্ন সচিব, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অরির্বান চাকমা, জেলা পরিষদের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান শ্রী লক্ষিপদ দাশ। মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে বান্দরবানের জেলা কমান্ডার সম্মানীত ক্যাপটেন আবুল কাশেম চৌধুরী বীর প্রতিক, সদর উপজেলা কমান্ডার সফিকুর রহমান,লামা উপজেলা কমান্ডার শেখ মাহবুবর রহমান,নাইক্ষংছড়ি উপজেলা কমান্ডার মোঃ রজা মিয়া, সাবেক জেলা কমান্ডার সেলিম আহমেদ চৌধুরী, সাবেক সাংগঠনিক কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা আবদুল জলিল প্রমুখ। মন্ত্রনালয়ের সচিব এমএ হান্নান বলেন একমাত্র জাতীর জনক বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকারই স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর সেনানীদের সঠিক মুল্যায়ন করেছে। তিনি বলেন বিশ্বের বহু দেশে সরকারী ভাবে সফর বরার সুযোগ হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশের মতন অন্য কোথাও মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের অস্থিত্ব খুজে পাওয়া যায়ন্ িতিনি বলেন আজ একমাত্র জননেত্রী শেক হাসিনার অবদানের কারনে ১০ হাজার টাকা করে মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা পাচ্ছেন। তিনি বলেন জাতীর জনকের কন্যা শেখ হাসিনা যদি আজ ক্ষমতায় নাথাকতেন তাহলে মুক্তিযোদ্ধাদের নাম ঠিকানাও থাকতো কিনা সন্দেহ আছে। মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক মন্ত্রনালয়ের সচিব এমএ হান্নান বান্দরবান বাস ষ্টান্ডের মুক্তিযোদ্ধা স্মৃতি সৌধের অব্যবস্থাপনা এবং অপরিস্কার অপরিচ্ছন্নতা দেখে বিস্ময় প্রকাশ করে অতিদ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি নির্দেশ প্রদান করেন।

পড়ে দেখুন

পার্বত্য তিন জেলার পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোতে শিগগিরই এপিবিএন মোতায়েন করার ঘোষণা দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিদেক :: রাঙামাটি: পার্বত্য তিন জেলার পরিত্যক্ত সেনা ক্যাম্পগুলোতে শিগগিরই এপিবিএন মোতায়েন করার ঘোষণা …