শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ব্রেকিং নিউজ / এফ পি এ বি রাঙ্গামাটি শাখার বার্ষিক সাধারণ সভা কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে না থেকে এফপিএবির নিজস্ব আয় বাড়িয়ে কার্যক্রম চালাতে হবে ——মকছুদ আহমেদ

এফ পি এ বি রাঙ্গামাটি শাখার বার্ষিক সাধারণ সভা কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে না থেকে এফপিএবির নিজস্ব আয় বাড়িয়ে কার্যক্রম চালাতে হবে ——মকছুদ আহমেদ

॥ বিশেষ সংবাদদাতা ॥ দেশের সর্বপ্রাচীন বেসরকারী স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি (এফপিএবি) রাঙ্গামাটি শাখার বার্ষিক সাধারণ সভা গতকাল বৃহস্পতিবার সংস্থার নিজস্ব ভবনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।
সভায় বিগত সভার কার্যবিবরণী পাঠ ও অনুমোদন এবং ২০১৬ সালের বাজেট উপস্থাপন করা হয়। সভায় সকলের মতামতে কার্যবিবরণী ও বাজেট পাশ করা হয়।
বার্ষিক সাধারণ সভায় সভাপতিত্ব করেন এফপিএবি রাঙ্গামাটির সভাপতি মো ঃ মুজিবুর রহমান । স্বাগত বক্তব্য রাখেন, সংস্থার অবৈতননিক সাধারন সম্পাদক এড. আবুল কালাম আকাশ।
আর্থিক প্রতিবেদন ও অডিট রির্পোট উপস্থাপন করেন এফপিএবি রাঙ্গামাটির অবৈতনিক কোষাধাক্ষ্য শামসুল আলম।
এতে বক্তব্য রাখেন এফপিএবি জেলা কর্মকর্তা জসিম উদ্দিন। এফপিএবি রাঙ্গামাটির সাবেক সভাপতি এ কে এম মকছুদ আহমেদ, এফপিএবির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা জসিম ও রবীন্দ্র লাল দে, আজীবন সদস্য এম জিশান বখতেয়ার , দীপক দেওয়ান প্রমুখ।
এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন এফপিএবি রাঙ্গামাটি কার্য নির্বাহী কমিটির সহ-সভাপতি সুফিয়া কামাল, যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ সোলায়মান, জাতীয় কাউন্সিলর চৌধুরী হারুনুর রশীদ, কার্যনির্বাহী সদস্য জামশেদ আহমেদ, সদস্য খোকন কুমার দে ।
সংস্থার সাধারণ সম্পাদক এড. আবুল কালাম আকাশ তার লিখিত বক্তব্যে সংস্থার সকল আজীবন ও সাধরণ সদস্যদের বিগত বৎসরের সার্বিক কার্যক্রম উপস্থাপন করেন।
অতিথির বক্তব্যে এফপিএবি রাঙ্গামাটির সাবেক সভাপতিও দৈনিক গিরিদর্পণ সম্পাদক একে এম মকছুদ আহমেদ দীর্ঘ দিন তাঁর এফপিএবির কার্যক্রম পরিচালনার কথা উল্লেখ করে বলেন, শুধু কেন্দ্রের দিকে তাকিয়ে থাকলে চলবে না। এফপিএবির নিজস্ব আয় বাড়িয়ে এর কার্যক্রম চালাতে হবে। তাই স্বেচ্চাশ্রমের মনোভাব নিয়ে সকল সদস্যকে কাজ করতে হবে। তিনি পার্বত্য এলাকায় এফপিএবির কায়ক্রমের যে সুনাম রয়েছে তা ধরে রাখতে এফপিএবির সকল সদস্যকে এক হয়ে এর কার্যক্রম পরিচালনার আহবান জানান।
তিনি বলেন এফপিএবি পাহাড়ের আনাচে কানাচে প্রসবকালীন সেবা ও পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতির সেবা সম্পর্কিত সব কার্যক্রম চালিয়ে প্রশংসা কুরিয়েছে। একে ধরে রাখতে হবে। কিন্তু এর সঠিক প্রচারণা না থাকায় মানুষ এফপিএবির সেবা সর্ম্পকে সঠিক ভাবে জানতে পারছেনা। দরিদ্র জনগন যাতে এফপিএবির প্রজনন স্বাস্থ্য সেবা সঠিক ভাবে পেতে পারে সে জন্য এ সংগঠননের কার্যক্রমকে জনগনের মাঝে আরো ছড়িয়ে দিতে হবে বলে তিনি মন্তব্য করেন।
এফপিএবি রাঙ্গামাটির সভাপতি মো ঃ মুজিবুর রহমান বলেন, ১৯৫৩ সালে এফপিএবি এদেশে মা ও শিশু স্বাস্থ্যসেবা কার্যক্রম শুরু করে। বর্তমানে পরিবার পরিকল্পনা অধিদপ্তরের সহায়ক ও পরিপূরক হিসেবে এফপিএবি রাঙ্গামাটি জেলায় এ কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে। সামনে হয়তো অনেক প্রতিকূলতা আসতে পারে। সব কিছুকে অতিক্রম করে রাঙ্গামাটির এফপিএবির কার্যক্রমকে এগিয়ে নিতে হবে। এফপিএবির কার্যক্রমসমূহ স্ব স্ব অবস্থান থেকে জনগনের মাঝে তুলে ধরার জন্যও তিনি সকলের প্রতি অনুরোধ জানান।
এফপিএবির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মনোয়ারা জসিম বলেন, পরিবার পরিকল্পনার স্থায়ী ও দীর্ঘ মেয়াদী পদ্ধতির সেবাসহ সাধারণ রোগের চিকিৎসা সেবা প্রদানের লক্ষ্যে রাঙ্গামাটিতে উল্লেখযোগ্য কার্যক্রম বাস্তবায়ন করেছে বাংলাদেশ পরিবার পরিকল্পনা সমিতি (এফপিএবি)।
তিনি বলেন, রাঙ্গামাটি শহর এলাকায় এবং লংগদু, কাপ্তাই,নারানগিরিতে বিশেষ ক্যাম্প পরিচালনা করে এফপিএবি সল্পমূল্যে এবং দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে বিনামূল্যে প্রসবকালীন সেবা ও পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতির সেবা প্রদান করেছে যা এ অঞ্চলের মানুষের জন্য বিরাট অবদান রেখেছে।
তিনি বলেন যে সব কার্যক্রম এখনও চলছে তাতে মানুষকে আরো বেশি সম্পৃক্ত করতে হবে। তিনি এফপিএবির সকল সদস্যকে প্রসবকালীন সেবা ও পরিবার পরিকল্পনা পদ্ধতির সেবা সম্পর্কিত সব কার্যক্রম সর্ম্পকে সচেতনতা বাড়ানোর উপর জোর দেন।
সভায় এফপিএবি’র কার্যকরী কমিটির সদস্য, আজীবন সদস্য, এফপিএবি’র জেলা শাখার কর্মকর্তা কর্মচারী, সাধারন সদস্য, যুব সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

পড়ে দেখুন

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের শহীদদের …