শিরোনাম
প্রচ্ছদ / খাগড়াছড়ি / মহালছড়িতে সেনাবাহিনী ও ইউপিডিএফ’র গুলিবিনিময়ে এক নিহত এসএমজি ও এসএলআরসহ বিপুল সামরিক সরঞ্জাম উদ্বার

মহালছড়িতে সেনাবাহিনী ও ইউপিডিএফ’র গুলিবিনিময়ে এক নিহত এসএমজি ও এসএলআরসহ বিপুল সামরিক সরঞ্জাম উদ্বার

॥ বিশেষ সংবাদদাতা ॥ খাগড়াছড়িতে সেনাবাহিনী ও ইউপিডিএফ মধ্যে ব্যাপক গুলিবিনিময়ে এক সন্ত্রাসী নিহত হয়েছে। এসময় একটি চাইনার তৈরী একটি সাব মেশিনগান ও একটি এসএলআর উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল বিকালে সেনাবাহিনীল সাথে এই ঘটনা চলে। ঘটনার পর পর বিপুল সংখ্যা সেনা সদস্য এলাকায় তল্লাশি অভিযান অব্যাহত রেখেছে।
স্থানীয়রা জানান, বড় ধরণের সন্ত্রাসী তৎপরতা পরিচালনার জন্য ইউপিডিএফের সন্ত্রাসী গ্রুপ বিভিন্ন অঞ্চল থেকে শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে জেলার সদর উপজেলার ভুয়াছড়ি ইউনিয়নের অনিকা মেম্বার পাড়ায় জড়ো হয়।
গোপন সংবাদের ভিত্তিতে এ খবর পেয়ে সেনাবাহিনীর মহালছড়ি জোনের একটি পেট্রোল ঘটনাস্থলে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর উপর গুলিবর্ষণ করে। এসময় সেনাবাহিনীও পাল্টা গুলি চালালে দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলে। এতে ইউপিডিএফের এক সন্ত্রাসী গুলিবিদ্ধ হয়ে ঘটনাস্থলেই মারা যায়।
খাগড়াছড়ি সেনা রিজিয়নের ষ্টাফ অফিসার মেজরফেরদৌস হোসেন ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫ টার দিকে খাগড়াছড়ি জেলা সদরের ভুয়াছড়ি ইউনিয়নের অনিকা মেম্বার পাড়ায় ইউপিডিএফ’র সন্ত্রাসীরা জড়ো হচ্ছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে সেনাবাহিনীর মহালছড়ি জোনের একটি পেট্রোল ঘটনাস্থলে পৌঁছালে সন্ত্রাসীরা সেনাবাহিনীর উপর এলোপাথারী গুলিবর্ষণ করে। এসময় সেনাবাহিনীও পাল্টা গুলি চালালে দুই পক্ষের মধ্যে বন্দুকযুদ্ধ চলে। এক পর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটে।
পরে এলাকাটি তল্লাসী চালিয়ে একটি চাইনিজ সাব মেশিনগানসহ সামরিক পোশাক পরিহিত এক ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীর লাশ পড়ে থাকতে দেখা যায়। তবে তার নাম জানা যায়নি। পরে ঘটনাস্থল চালিয়ে আরো একটি এসএলআর উদ্ধার করা হয়। সেনাবাহিনী ঘটনাস্থল ঘিরে রেখে এখনো তল্লাসী  অব্যহত রেখেছে।

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …