শিরোনাম
প্রচ্ছদ / ব্রেকিং নিউজ / রাঙ্গামাটিতে কাচালং ও সীতা পাহাড়ে তেল/গ্যাস উত্তোলন বিষয়ে মতবিনিময় সভা

রাঙ্গামাটিতে কাচালং ও সীতা পাহাড়ে তেল/গ্যাস উত্তোলন বিষয়ে মতবিনিময় সভা

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ রাঙ্গামাটি বাঘাইছড়ি উপজেলার কাচালং ও কাপ্তাই উপজেলার সীতা পাহাড় এলাকায় তেল/গ্যাস উত্তোলন করা হলে এই এলাকায় প্রাকৃতিক বিপর্যয় আরো বেড়ে যাবে বলে আশংকা প্রকাশ করেছেন পার্বত্য চট্টগ্রামের আঞ্চলিক পরিষদের চেয়ারম্যান জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লামার ওরফে সন্তু লারমা। তিনি বলেন, পার্বত্য এইসব এলাকায় যদি তেল ও গ্যাস উত্তোলন করা হয় তা হলে এখানে বসবাসরত হাজার হাজার পরিবার তাদের ঘরবাড়ি হারিয়ে উদ্বাস্তু হয়ে যাবে। পাহাড়ের ভূমি বিরোধকে আরো জটিল করে তুলবে।
সোমবার সকালে রাঙ্গামাটি পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞলিক পরিষদের সভাকক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের আয়োজনে রাঙ্গামটি পার্বত্য জেলার উপজেলার কাচালং ও কাপ্তাই উপজেলার সীতা পাহাড় এলাকায় তেল গ্যাস উত্তোলন বিষয়ে স্থানীয় সুশীল সমাজের প্রতিনিধিদের সাথে মতবিনিময় সভায় তিনি এ আশংকা প্রকাশ করেন।
মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন, রাঙ্গামাটি সংসদ সদস্য ঊষাতন তালুকদার এমপি, কাপ্তাই উপজেলা চেয়ারম্যান দিলদার হোসেন, রাঙ্গামাটি সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তরুন কান্তি চাকমা, পার্বত্য চট্টগ্রাম নাগরিক কমিটির সভঅপতি গৌতম দেওয়ান, খাগড়াছড়ি হেডম্যান এসোসিয়েশনের সভাপতি শক্তিপদ ত্রিপুরা, আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য হাজী কামাল উদ্দিন।
অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, সাবেক যুগ্ন জজ এ্যাড. দীপেন দেওয়ান, সাবেক উপ-সচিব প্রকৃতি রঞ্জন চাকমা, রক্ত উৎপল ত্রিপুরা প্রমুখ।
সভায় বক্তারা বলেন, কাচালং ও সীতা পাহাড় এলাকায় তেল গ্যাস উত্তোলনের মাধ্যমে এই এলাকার ক্ষতিগ্রস্থ সাধারণ মানুষরা কি ভাবে উপকৃত হবে, তাদের স্বার্থ কি হবে, তাদের সঠিকভাবে পুর্নবাসন করা হবে কিনা, কোথায় তাদের পুর্ণবাসন করা হবে, ভূমি বিরোধ কি পর্যায়ে গিয়ে দাঁড়াবে এবং এখানকার জীব বৈচিত্র্য ও বনভুমি কি পরিমাণ ক্ষতি হবে এই নিয়ে সরকারকে আগে ভাবতে হবে।

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …