শিরোনাম
প্রচ্ছদ / চট্টগ্রাম / প্রখ্যাত সাংবাদিক সায়ফুল আলম এর ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা

প্রখ্যাত সাংবাদিক সায়ফুল আলম এর ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা

প্রখ্যাত সাংবাদিক সায়ফুল আলম এর ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকীতে আলোচনা সভা
॥ চট্টগ্রাম অফিস ॥  ২৫ ডিসেম্বর রবিবার অপরাহ্নে জামাল খান সড়কস্থ চট্টগ্রাম প্রেসক্লাব সেমিনার হলে চট্টগ্রামের কৃতি পুরুষ, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ, চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রাক্তন সভাপতি এবং অধুনালুপ্ত দৈনিক বাংলা’র চট্টগ্রাম প্রতিনিধি প্রখ্যাত সাংবাদিক সায়ফুল আলম এর ২৪ তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে সাংবাদিক সায়ফুল আলম স্মৃতি সংসদ ও স্বাধীন সংবাদপত্র পাঠক সমিতির যৌথ উদ্যোগে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
সংগঠনের সভাপতি বিশিষ্ট সাংবাদিক এস.এম.জামাল উদ্দিন এতে সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মৃত্যুবার্ষিকী আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন।
সায়ফুল আলম স্মৃতি সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক সাংবাদিক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিনের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন, চিটাগাং সাংবাদিক কো-অপারেটিভ হাউজিং সোসাইটির চেয়ারম্যান মইনুদ্দিন কাদেরী শওকত, চট্টগ্রাম মুক্তিযোদ্ধা সংসদের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি ও কারা-পরিদর্শক আলহাজ্ব জাহাঙ্গীর চৌধুরী, বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়নের প্রাক্তন সহ-সভাপতি জাহিদুল করিম, চট্টগ্রাম কর আইনজীবী সমিতির প্রাক্তন সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ মুছা। শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন মাওলানা নসরুল কবির।
আলোচনা সভায় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম প্রেসক্লাবের সমাজসেবা সম্পাদক মোহাম্মদ আইয়ুব আলী, চাটগাঁ ডাইজেস্ট সম্পাদক সিরাজুল করিম মানিক, সাংবাদিক সায়ফুল আলমের কন্যা শিরিন-উল আলম, প্রবীণ সমাজসেবক শাহ আলম সিদ্দিকী, বিশিষ্ট ব্যাংকার মোঃ সেলিম উদ্দিন, চট্টগ্রাম রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্স দলিল লেখক সমিতির সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব এম.মোক্তার আহমদ, ইঞ্জিনিয়ার ইফতেখার হোসেন, প্রবীণ শ্রমিক নেতা এম.এ.সাত্তার, কর আইনজীবী মোঃ আমির হোসেন, সাংবাদিক মোহাম্মদ নাজিম উদ্দিন, বিশিষ্ট রাজনীতিক স্বপন সেন, মানবাধিকার সাংবাদিক শ্যামল নাথ, মানবাধিকার সংগঠক নূর মোহাম্মদ পুতু, পারভিন-উল আলম, মোহাম্মদ সাইফুদ্দিন, রাজনীতিক সিরাজুল ইসলাম চৌধুরী, ব্যবসায়ী নেতা সৈয়দ আবদুল হান্নান বাবু, কবি সজল দাশ, সাংবাদিক নুর উদ্দিন চৌধুরী ও ডাঃ চন্দন দত্ত প্রমুখ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক মোঃ সামসুল আরেফিন বলেন, ‘‘বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা ছিল সাংবাদিক সায়ফুল আলমের মূল চাবিকাঠি। সত্যিকার অর্থে তিনি ছিলেন দেশের একজন কৃতি সাংবাদিক। পেশার প্রতি সায়ফুল আলম ছিলেন  নিবেদিত প্রাণ ও আন্তরিক। তিনি আরো বলেন, একজন পেশাদার সাংবাদিক হিসেবে চট্টগ্রামের সাংবাদিকতার ইতিহাসে সায়ফুল আলম চির ভাস্বর হয়ে থাকবেন। সায়ফুল আলম ছিলেন সৎ, নিরহংকার, নির্লোভ, সহজ-সরল সাংবাদিক এবং সত্যের পূজারী”। বিশেষ অতিথি সাংবাদিক মইনুদ্দিন কাদেরী শওকত বলেন, মরহুম সায়ফুল আলম ছিলেন ইতিহাস ঐতিহ্য সচেতন সাংবাদিক। সাংবাদিকদের অধিকার আদায়ের জন্য সায়ফুল আলম চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি হিসেবে বলিষ্ট ভূমিকা পালন করেছিলেন। সম্পাদক ও সাংবাদিকদের মর্যাদা রক্ষার ব্যাপারে তিনি ছিলেন আপোষহীন।
সভাপতির বক্তব্যে সাংবাদিক এস.এম.জামাল উদ্দিন বলেন, মরহুম সাংবাদিক সায়ফুল আলম ছিলেন স্বর্ণযুগের সাংবাদিক। সে একটা কাল ছিল, সাংবাদিক মানে নেশা ও পেশার প্রতি একাগ্র মানুষ। সায়ফুল আলম সেই আমলের সাংবাদিক। ইংরেজী জ্ঞান নিয়ে একটু অহংকার, সাহিত্য পাঠের জন্য বাড়তি আত্মবিশ্বাস, ইতিহাস ও সাধারণ জ্ঞানের জোরে সহজ স-প্রতিভ আর সেই সঙ্গে আদর্শ এবং মূল্যবোধের তেজ, এসব মিলেই সায়ফুল আলম। তাঁর প্রজন্মের, তাঁর ধারার সাংবাদিক এখন পেশায় প্রায় নেই বললেই চলে। তিনি ছিলেন এক কথায় স্বর্ণযুগের সাংবাদিক। তাঁকে জানলে আমাদের সাংবাদিকতার স্বর্ণযুগকেই জানা হবে বলে আমার বিশ্বাস। তাঁর মত নীতিবান সাংবাদিক বর্তমান সমাজে বিরল বলে তিনি অভিমত প্রকাশ করেন।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …