শিরোনাম
প্রচ্ছদ / আন্তর্জাতিক / কলম্বিয়ায় ভূমিধস ও বন্যায় প্রাণহানি ২৫০

কলম্বিয়ায় ভূমিধস ও বন্যায় প্রাণহানি ২৫০

কলম্বিয়ার দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে পুতুমায়ো প্রদেশে ভূমিধস ও বন্যায় প্রাণহানির সংখ্যা বেড়ে ২৫৪–তে পৌঁছেছে। আহত হয়েছে কয়েক শ। বিবিসির খবরে জানা যায়, সারা রাত ধরে বৃষ্টি হওয়ায় প্রাদেশিক রাজধানী মোকোয়ার নদীর তীর ভেসে যায়। বন্যার পানিতে ঘরবাড়ি ডুবে যায়। রেডক্রস বলছে, কমপক্ষে ২২০ জন নিখোঁজ রয়েছে। ২০২ জন আহত হয়েছে।

ঘটনাস্থলে গিয়েছেন প্রেসিডেন্ট হুয়ান মানুয়েল সান্তোস। তিনি বলেন, জাতীয় দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার অংশ হিসেবে ওই এলাকায় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। তিনি ওই এলাকায় জরুরি অবস্থা জারি করেছেন। সান্তোস বলেন, ক্ষতিগ্রস্ত ব্যক্তিদের সাহায্যের জন্য তিনি সবই করবেন। এ ঘটনাকে তিনি হৃদয়বিদারক বলে মন্তব্য করেন।

সেনাবাহিনী এক বিবৃতিতে জানায়, এ পর্যন্ত ২৫৪ জন নিহত হয়েছে। ৪০০ জন আহত হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছে ২০০। এর আগে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে দেওয়া এক বার্তায় সান্তোস নিহত ব্যক্তিদের সংখ্যা ১৯৩ বলে জানান।

রয়টার্সের খবরে বলা হয়েছে, ১ হাজার ১০০–রও বেশি সেনা এবং পুলিশ কর্মকর্তা উদ্ধারকাজে অংশ নিয়েছেন। একজন সেনা কর্মকর্তা জানান, স্থানীয় হাসপাতালগুলো পরিস্থিতি সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে।

আঞ্চলিক গভর্নর সরেল আরোকা কলম্বিয়ান গণমাধ্যমকে বলেছেন, আশপাশের সব এলাকা ভূমিধসে চাপা পড়েছে।

জ্যেষ্ঠ পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ৮০ শতাংশ রাস্তা তিন ঘণ্টার মধ্যে ভূমিধসে চাপা পড়বে। সেতুগুলো ভেসে গেছে।

কাদামাটির মধ্যে শ্বশুরকে খুঁজছিলেন মোকোয়ার বাসিন্দা মারিও উসালে। তিনি বলেন, এটি মৌসুমি বৃষ্টি। রাত ১১টা থেকে একটা পর্যন্ত জোরে বাতাস বইছিল। তাঁর শাশুড়িও নিখোঁজ ছিলেন। পরে বাড়ি থেকে দুই কিলোমিটার দূরে তাঁকে খুঁজে পেয়েছেন।

প্রাদেশিক রাজধানী মোকোয়ার মেয়র হোস অ্যান্তোনিও বলেন, ওই এলাকা বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েছে। সেখানে পানি ও বিদ্যুৎ নেই।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …