শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বান্দরবান / জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিন্তা করেছিল বলেই আজ পার্বত্য এলাকায় শান্তির সু-বাতাস বইছে——–বীর বাহাদুর এমপি

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিন্তা করেছিল বলেই আজ পার্বত্য এলাকায় শান্তির সু-বাতাস বইছে——–বীর বাহাদুর এমপি

॥ ছোটন বড়–য়া/খগেশপ্রতি চন্দ্র খোকন ॥ জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিন্তা করেছিল বলেই আজ পার্বত্য এলাকায় শান্তির সু-বাতাস বইছে। বঙ্গবন্ধুর কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা শান্তি চুক্তি করে পার্বত্য বাসির শান্তি ও উন্নয়ন জোয়ার প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। আমি বান্দরবানের উন্নয়নের জন্য জীবন দিতে প্রস্তুত। বান্দরবানকে আগামী দিনে মডেল জেলা হিসাবে উপহার দিব। সবাই আমাকে সহায়তা করলে বান্দরবানকে বাংলাদেশের শান্তির শহর গড়ে তুলব। তিনি আরো বলেন, লামার মানুষ অনেক ভাল। আমি লামার মানুষকে অনেক ভালবাসি। গতকাল লামা-গজালিয়া জীপ স্টেশনে উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক জনসভায় পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এম.পি. এইসব কথা বলেন।  বৃহস্পতিবার (২০ এপ্রিল) ১ দিনের সরকারী সফরে লামায় আসেন। এই সময় তিনি লামা পৌর বাস টার্মিনাল ও প্রতিবন্ধী স্কুল সহ ৯টি উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর করেন। বেলা ১২টায় প্রতিমন্ত্রী লামা পৌছান। এসময় তিনি লামা পৌর বাস টার্মিনালের ভিত্তিপ্রস্তর, লামা কেন্দ্রীয় বৌদ্ধ বিহারের পালিটোল ভবনের উদ্বোধন, মুক্তিযোদ্ধা দ্বিতল ভবনের উদ্বোধন, লামামুখ উচ্চ বিদ্যালয়ের নতুন ভবনের উদ্বোধন, লামামুখ সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিশুতোষ পাঠাগার উদ্বোধন, চাম্পাতলী প্রতিবন্ধী স্কুলের উদ্বোধন, কেয়াং ঘর উদ্বোধন, লামা-গজালিয়া জীপ স্টেশনের দ্বিতল যাত্রী ছাউনির উদ্বোধন করেন। বিকাল ৫টায় লামা-গজালিয়া জীপ স্টেশনে উপজেলা আওয়ামীলীগ আয়োজিত এক জনসভায় ভাষণ দেন। লামা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব মোহাম্মদ ইসমাইল এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জনসভায় প্রধান অতিথি ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর উশৈসিং এম.পি। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন, সহকারী জেলা প্রশাসক দিদারে আলম মোঃ মাকসুদ চৌধুরী, বান্দরবানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আলী হোসেন, পার্বত্য চট্টগ্রাম উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী আব্দুল আজিজ, বান্দরবান জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষীপদ দাশ, লামা পৌরসভার মেয়র জহিরুল ইসলাম, মোস্তফা জামাল, ফাতেমা পারুল, উপজেলা আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক বাথোয়াইচিং মার্মা, যুগ্ন সম্পাদক বিজয় কান্তি আইচ, ইউপি চেয়ারম্যান ছাচিং প্রু মার্মা, মিন্টু কুমার সেন, জাকের হোসেন মজুমদার, জালাল আহমদ, মোঃ ফরিদ উদ্দিন, পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ রফিক ও সম্পাদক তাজুল ইসলাম সহ প্রমূখ।
প্রতিমন্ত্রী বীর বাহাদুর এম.পি বলেন, শিক্ষা ছাড়া কোন জাতি অগ্রসর হতে পারেনা। আদর্শ একটি জাতি গঠণে সুদক্ষ শিক্ষকের প্রয়োজন। শিক্ষা খাতে যে কোন সমস্যাকে সবার আগে গুরুত্ব দিয়ে কাজ করা হবে। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা ২০২১ সালের মধ্যে এই দেশকে মধ্যম আয়ের দেশ হিসাবে দেখতে চান। সেই লক্ষ্য নিয়ে আমরা কাজ করে যাচ্ছি।

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …