শিরোনাম
প্রচ্ছদ / চট্টগ্রাম / লামায় জেএসএস ও ইউপিডিএফ এর বিরুদ্ধে অবরোধ

লামায় জেএসএস ও ইউপিডিএফ এর বিরুদ্ধে অবরোধ

লামাঃ-১২ জাতির এক দাবি জেএসএস সন্ত্রাসী মুক্ত পার্বত্য ভূমি। জেএসএস সন্ত্রাসী হুশিয়ার-সাবধান। ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীদের কালো হাত ভেঙ্গে দাও গুড়িয়ে দাও। জেএসএস এর দালালরা হুশিয়ার সাবধান। জেএসএস সন্ত্রাসীদের অত্যাচার মানিনা-মানবোনা। ৪০ হাজার বাঙ্গালী হত্যাকারী সন্তু লারমার ফাঁসি চাই। আওয়ামীলীগ নেতা মংপ্রু মার্মা খুনের বিচার চাই, করতে হবে। রোয়াংছড়ি জেএসএস সন্ত্রাসী কর্তৃক মোসলেম হত্যার বিচার চাই, করতে হবে। এইসব স্লোগান নিয়ে শনিবার ভোর থেকে বান্দরবানের লামার ফাঁসিয়াখালী-লামা সড়ক, লামা-সুয়ালক রোড ও লামা-আলীকদম রোড সহ সকল আন্ত সড়কে অবরোধ পালিত হচ্ছে।
ফাঁসিয়াখালী-লামা সড়কের ইয়াংছা, লাইনঝিরি এবং লামা সুয়ালক সড়কের কেয়াজুপাড়া বাজার, ডিসি রোড, সাপমারা ঝিরি, সরই ইউনিয়নের হাসনাভিটা, কিল্লাখোলা পয়েন্টে বাঙ্গালী ও মুরুং জনগোষ্ঠীর লোকজন অবরোধ কর্মসূচী পালন করতে দেখা যায়।
এদিকে পূর্বের কোন প্রকার ঘোষণা ছাড়া হঠাৎ এই অবরোধ কর্মসূচী পালন করায় লামা আলীকদম ও দূরদুরান্ত থেকে আসা লোকজন চরম ভোগান্তিতে পড়েছে বলে তারা জানায়। অপরদিকে বিভিন্ন পয়েন্টে নিরাপত্তা জোরদারের জন্য পুলিশ বাহিনীর টহল ও অবস্থান লক্ষ্য করা যায়।
লাইনঝিরি পয়েন্টে অবরোধ কার্যক্রমের নেতৃত্ব প্রদান করছে, চংবট মুরুং, উবাথোয়াই মার্মা সহ শতাধিক লোকজন। অবরোধরত একজন জানায়, শনিবার লামার ফাঁসিয়াখালী বনপুর এলাকার লাদেন গ্রুপের বাগান ও সরই এলাকায় লামা রাবার বাগান সহ কিছু বাগান পরিদর্শনে আসছিল ঐক্য ন্যাপ এর সভাপতি পংকজ ভট্টাচার্য্য সহ কয়েকজন। জেএসএস ও ইউপিডিএফ পাহাড়ি সন্ত্রাসী কর্তৃক অপহরন, গুম, খুন, সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি বন্ধ সহ ঐক্য ন্যাপ নেতাদের আগমনকে প্রতিহত করতে এই অবরোধ পালিত হচ্ছে বলে জানায় পিকেটারত লোকজন।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …