শিরোনাম
প্রচ্ছদ / খাগড়াছড়ি / খাগড়াছড়ি ইউপিডিএফ তান্ডব চলেছেই

খাগড়াছড়ি ইউপিডিএফ তান্ডব চলেছেই

কোন কর্মসূচি ছাড়াই ইউনাইটেড পিপলস ডেমোক্রেটিক ফ্রন্টের (ইউপিডিএফ) কর্মীরা বুধবার দুপুরে আকস্মিকভাবে খাগড়াছড়ির রামগড়ে বেপরোয়া গাড়ি ভাংচুর ও মানিকছড়িতে গাড়িতে অগ্নি সংযোগ করে পুড়িয়ে দিয়েছে।এ ঘটনায় এলাকায় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ দেখা দিয়েছে।খাগড়াছড়ি জেলা সদরের স্বনির্ভর এলাকায় বুধবার সকালে হিল উইমেন্স ফেডারেশনের সদস্যদের সাথে আইন শৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় সংগঠনটির কয়েকজন নেতাকর্মী গ্রেফতার হওয়ায় ইউপিডিএফের কর্মীরা ক্ষুদ্ধ হয়ে গাড়ি ভাংচুর ও অগ্নি সংযোগ করে বলে জানা গেছেপুলিশ ও স্থানীয় এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে,বুধবার দুপুর দুইটার দিকে ইউপিডিএফের ২০-৩০জন কর্মী রামগড় জালিয়াপাড়া সড়কের যৌথখামার এলাকায় আকস্মিক ভাবে রাস্তার ওপর গাছ ফেলে ব্যারিকেড দেয়।এসময় রামগড় থেকে খাগড়াছড়ি গামী এবং খাগড়াছড়ি থেকে রামগড় ও ফেনী গামী বিভিন্ন যানবাহন ওই ব্যারিকেডে আটকা পড়ে।ইউপিডিএফের কর্মীরা বেপরোয়া ভাবে আটকা পড়া গাড়িতে হামলা করে।এতে ফেনী গামী একটি যাত্রীবাহি বাস,একটি প্রাইভেট কার,একটি সিএনজি চালিত অটো রিকশা ও একটি পিকআপ ভাংচুর হয়। হামলায় বাসের কয়েকজন যাত্রীও আহত হয়।ক্ষতিগ্রস্ত প্রাইভেটকারের (নম্বর-ঢাকা মেট্রো গ ৩৩-০২৭৫) চালক মেজবাহ উদ্দিন বলেন,রাস্তায় ব্যারিকেড দেখে গাড়ি থামানোর পর পাশের জঙ্গল থেকে ১০/১৫ পাহাড়ি যুবক লাঠিসোটা নিয়ে হঠাৎ তার গাড়ির ওপর হামলা চালায়।তারা প্রাইভেট কারের সামনের,পিছনের ও পাশের সবগুলো গ্লাস ভেঙে দেয়। একইভাবে ভাংচুর করা অটো রিকশার চালক মো.সেলিম বলেন,পাহাড়ি যুবকরা তেড়ে আসলে তিনি গাড়ি থেকে নেমে দৌঁড়ে পালিয়ে আত্মরক্ষা করেন।এদিকে বেপরোয়া গাড়ি ভাংচুরের খবর পেয়ে রামগড় ৪৩ বিজিবি ও থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে ইউপিডিএফের কর্মীরা জঙ্গলে লুকিয়ে পড়ে।রামগড় থানার অফিসার ইনচার্জ মো.শরীফুল ইসলাম ঘটনার সত্যত্যা নিশ্চিত করে বলেন,বিজিবি ও পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে ইউপিডিএফের কর্মীরা পালিয়ে যায়।তিনি বলেন,পুলিশের প্রহরায় যানবাহনগুলো গন্তব্যে পার করে দেয়া হয়।এদিকে,দুপুর একটার দিকে খাগড়াছড়ি চট্টগ্রাম সড়কের মানিকছড়ির পিছলাতলা নামক এলাকায় কাঁঠাল বোঝাই একটি পিকআপ (নম্বর-চট্ট মেট্রো ন ১১-৫১০২) আটকিয়ে ইউপিডিএফের কর্মীরা অগ্নি সংযোগ করে। এতে গাড়িটি পুড়ে যায় মানিকছড়ি থানার অফিসার ইনচার্জ মো.মাইন উদ্দিন খান বলেন,সংগঠনটির কয়েকজনকর্মী চট্টগ্রামগামী কাঁঠাল বোঝাই পিকআপের চালক ও হেলপারকে মারধর করে সরিয়ে দেয়।পরে তারা গাড়িটিতে আগুন লাগিয়ে দেয়।রাস্তায় ইউপিডিএফের কর্মীদের আকস্মিকভাবে যানবাহন ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়লে রামগড় জালিয়াপাড়া সড়ক ও খাগড়াছড়ি চট্টগ্রাম সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।পরে আইনশৃঙ্খলাবাহিনীর তৎপরতায় যানবাহন চলাচল শুরু হয়।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …