শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / রাঙ্গামাটির লংগদুর নয়ন হত্যার ঘটনায় আটক ২জনের আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি॥ জেল হাজতে প্রেরন

রাঙ্গামাটির লংগদুর নয়ন হত্যার ঘটনায় আটক ২জনের আদালতে স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দি॥ জেল হাজতে প্রেরন

॥ খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি ॥ রাঙ্গামাটির লংগদু সদর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা ও ভাড়ায় চালিত মোটরসাইকেল চালক নুরুল ইসলাম(৩৪) নয়ন হত্যার ঘটনায় আটক ২জন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেছে ।
রবিবার দুপুরে পৃথকভাবে আটককৃত রুনেল চাকমা ও জুনেল চাকমাকে চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট রোকেয়া আক্তারের আদালতে তোলা হলে তাঁরা এই জবানবন্দি প্রদান করে। পরে তাদের জেল হাজতে প্রেরন করা হয়। খাগড়াছড়ি সদর থানার অফিসার ইনচার্জ তারেক মোহাম্মাদ আব্দুল হান্নান বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, ঘটনায় জড়িত পলাতক অপর আসামীকে গ্রেফতারে অভিযান চলছে।
গত শনিবার মাত্র ১০দিনের মাথায় নয়ন হত্যার রহস্য উদঘাটন, দু’জনকে গ্রেফতার, নয়নের মোটর সাইকেল ও হেলমেট উদ্ধার করেছে পুলিশ। রাঙ্গামাটির কাপ্তাই থেকে নৌবাহিনীর ডুবুরি দল ও খাগড়াছড়ি ফায়ার সার্ভিসের একটি উইনিট, পুলিশ ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন টিমের সদস্যরা মিলে প্রায় ৩ ঘন্টার অভিযানের পর মাইনী নদী হতে নয়নের মোটর সাইকেল ও হেলমেট উদ্ধার করা  হয়েছে।
গ্রেফতারকৃতরা হচ্ছেন খাগড়াছড়ির দিঘীনালা উপজেলার পাকুজ্যাছড়ি এলাকার রমেল চাকমা ও রাঙ্গামাটির লংগদু উপজেলার জুনেল চাকমা। তাদের সাথে বাবুরাজ চাকমা নামে আরো একজন ছিল, তাকে গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। বাবুরাজের বাড়ি খাগড়াছড়ির দিঘীনালায়।
এর আগে গত ১জুন খাগড়াছড়ি দীঘিনালা সড়কের চার মাইল নামক এলাকায় নয়নকে হত্যা করে তার ব্যবহৃত মোটরসাইকেল নিয়ে পালিয়ে যায়। নয়ন হত্যার ঘটনায় জের ধরে লংগদুতে পাহাড়ীদের বাড়ী ঘরে অগ্নিসংযোগের ঘটনায় ভীত হয়ে দীঘিনালার মাইনী নদীতে মোটরসাইকেলটি ফেলে দেয়।
পুলিশ ঘটনার সূত্র ধরে অভিযান চালিয়ে রুনেল ও জুনেলকে আটক করে। পরে আটকৃতদের তথ্যের ভিত্তিতে খাগড়াছড়ির মাইনী নদী থেকে নয়নের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল ও হেলমেটটি উদ্ধার করে।

পড়ে দেখুন

চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) দ্বি–বার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা

চট্টগ্রাম ব্যুরো :: ঐতিহ্যবাহী চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়নের (সিইউজে) দ্বি–বার্ষিক নির্বাচনের ফলাফল আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করেছেন সিইউজে …