শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / কাপ্তাই ঘাঘড়া সড়কের ২২ স্থানে ভয়াবহ ভাঙ্গন

কাপ্তাই ঘাঘড়া সড়কের ২২ স্থানে ভয়াবহ ভাঙ্গন

॥ কাজী মোশাররফ হোসেন, কাপ্তাই ॥ কাপ্তাই-ঘাঘড়া সড়কের দুরত্ব ২০ কিলোমিটার। এই সড়কের পুরোটাই এখন ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে আছে। সড়কের ২২ স্থানে ভয়াবহ ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এছাড়াও জনগণের দৃষ্টি আকর্ষন করতে সড়কের ঝুঁকিপূর্ণ ১৭ স্থানে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে রাখা হয়। সরেজমিন পরিদর্শনে দেখা গেছে বরইছড়ি থেকে সড়কের ভাঙ্গন শুরু হয়েছে। মারমা পাড়া, হেডম্যান পাড়া, পাগলী পাড়া, তম্ব পাড়া, দেবতাছড়ি, মুরালী পাড়া, ওয়াগ্গা, কুকিমারা, সাপছড়ি ইত্যাদি এলাকায় ব্যাপক ভাঙ্গন রয়েছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান চিরনজীত তনচংগ্যা জানান, ঘাঘড়া সড়কটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। রাঙ্গামাটি-বান্দরবান-খাগড়াছড়ি-কাপ্তাই-রাজস্থলী যাতায়াতের জন্য ঘাঘড়া সড়কটি ব্যবহার করা হয়। কিন্তু এই সড়কে এখন সকল প্রকার যান চলাচল চরম ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় রয়েছে। নাজুক অবস্থার কারণে গত দেড় মাস ধরে এই সড়কে বাসসহ সকল প্রকার ভারি যান চলাচল বন্ধ রয়েছে। সিএনজি অটোরিক্সা, মোটরসাইকেল ইত্যাদি ছোট ও হালকা যানবাহন ঝুঁকি মাথায় নিয়ে চলাচল করছে। অটোরিক্সা চালক রহমত আলী জানান এমনিতেই সড়কের অবস্থা শোচনীয়। তারউপর প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে। এই বৃষ্টির কারণেও সড়কটি আরো ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়ছে।
এ ব্যাপারে কাপ্তাই উপজেলা নির্বাহী অফিসার তারিকুল আলম বলেন, কাপ্তাই-ঘাঘড়া সড়কটি যে চরম বিপর্যয়ের মধ্যে আছে এটা প্রশাসন অবহিত রয়েছে। এই সড়ক ছাড়াও আরো সড়কও অনুরূপ ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থার মধ্যে আছে। বিষয়টি নিয়ে রাঙ্গামাটি জেলা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটির কমিটির সভায় আলোচনা হয়েছে। সড়কটি সংস্কারের দায়িত্ব সড়ক ও জনপথ বিভাগের। এই সড়ক সংস্কারে সেনাবাহিনীও সহযোগিতা দিয়ে আসছে। তবে যেহেতু এখন প্রতিদিন বৃষ্টি হচ্ছে তাই আপাতত সড়কটি সংস্কার করার সুযোগ নেই। বৃষ্টি কমলে জরুরীভাবে যাতে সড়কটি সংস্কার করা হয় সে ব্যাপারে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ নেওয়া হবে বলে তিনি জানান

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …