শিরোনাম
প্রচ্ছদ / বান্দরবান / বান্দরবানে শান্তি চুক্তির ২০তম বর্ষপূর্তিতে জনসংহতি সমিতির গণ সমাবেশ

বান্দরবানে শান্তি চুক্তির ২০তম বর্ষপূর্তিতে জনসংহতি সমিতির গণ সমাবেশ

॥ রাহুল বড়–য়া ছোটন, বান্দরবান ॥ বান্দরবানে পার্বত্য শান্তি চুক্তির ২০তম বর্ষপূতি উপলক্ষ্যে র‌্যালী ও গণসমাবেশ করেছে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি (জেএসএস)।
এ উপলক্ষ্যে শনিবার (২ডিসেম্বর) দুপুর ৩টায় বান্দরবান শহরের পুরাতন রাজবাড়ি মাঠ থেকে একটি বর্ণাঢ্য র‌্যালী বের হয়ে শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে আবার একই স্থানে জমায়েত হয়। র‌্যালীতে ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড হাতে নিয়ে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির(জেএসএস) নেতাকর্মীরা অংশ নেয় ।
পরে শান্তি চুক্তির ২০তম বর্ষপূতি উপলক্ষ্যে পুরাতন রাজবাড়ি মাঠে আয়োজন করা হয় এক গণসমাবেশ। সমাবেশে বক্তারা বলেন, শান্তি চুক্তি ২০তম বর্ষপূর্তিতে পদার্পণ করলেও চুক্তির মৌলিক বিষয়গুলো এখনো বাস্তবায়িত হয়নি। পার্বত্য চট্টগ্রামে দীর্ঘস্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠায় চুক্তি পূর্ণাঙ্গভাবে বাস্তবায়ন করা প্রয়োজন। এসময় বক্তারা পার্বত্য চুক্তি বাস্তবায়নে বৃহত্তর আন্দোলন সংগঠিত করা ও চুক্তি বিরোধী সকল কার্যক্রম প্রতিরোধ করার আহবান জানান।
পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতি বান্দরবান জেলা শাখার সভাপতি উছোমং মারমার সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে হিসেবে উপস্থিত ছিলেন পার্বত্য চট্টগ্রাম আঞ্চলিক পরিষদের সদস্য ও জেএসএস’র কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক কে এস মং। এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় ভূমি বিষয়ক সম্পাদক চিং হ্লা মং চাক, জেএসএস বান্দরবান জেলার সাধারণ সম্পাদক ও রোয়াংছড়ি উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ক্যবামং মারমা, মহিলা সমিতি’র জেলা সভানেত্রী ওয়াইচিং প্রু মারমা, জেএসএস নেতা উচসিং মারমা, পুশৈ থোয়াই মারমা, যুব সমিতির জেলা সভাপতি মংস্তু মারমা, ছাত্র নেতা উবাসিং মারমা, পাহাড়ী ছাত্র পরিষদ জেলা সাধারণ সম্পাদক প্রু নু অং মারমাসহ জনসংহতি সমিতির নেতৃবৃন্ধরা।

পড়ে দেখুন

অধিক শস্য ফলনের জন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে সবাইকে সাশ্রয়ী হবার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিদ্যুৎ ব্যবহারে সাশ্রয়ী হবার পাশাপাশি সকলকে সঞ্চয় করার …