শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / স্মৃতি ও স্মরণে অবিভক্ত পার্বত্য চট্টগ্রামের মুক্তিযুদ্ধের ফটোগ্রাফার আব্দুস সালাম তালুকদার

স্মৃতি ও স্মরণে অবিভক্ত পার্বত্য চট্টগ্রামের মুক্তিযুদ্ধের ফটোগ্রাফার আব্দুস সালাম তালুকদার

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ- আব্দুস সালাম তালুকদার পিতাঃ- মৃত মোবারক আলী তালুকদার, মাতা- মরহুম হাকিম জান, সাং:- কাঁঠালতলী, উপজেলাঃ সদর ডাক:- রাঙ্গামাটি, জেলাঃ রাঙ্গামটি পার্বত্য জেলা। তিনি ১৯৬৭ ইং হতে রাঙামাটি জেলা আওয়ামীলীগ নেতা জনাব ছৈয়দুর রহমান এর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর রাজনীতির সাথে ওতোপ্রতোভাবে জড়িত ছিলেন। পেশাগত জীবনে তিনি একজন ফটোগ্রাফার ছিলেন। তবলছড়ি বাজারে তাঁর ব্যক্তিমালিকানাধীন লাভলী ষ্টুডিও নামে একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান ছিল। রাজনীতিতে জড়িত থাকার সুবাদে এবং ফটোগ্রাফার হিসেবে পেশাগত দায়িত্বের কারনে ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় তিনি মুক্তিযুদ্ধের চিন্তা ও চেতনায় বিশ্বাসী ছিলেন বলে মুক্তিযোদ্ধাদের সাথে বিভিন্ন রনাঙ্গনে,ভারতীয় মিত্র বাহিনীর উপস্থিতিসহ এবং রাঙ্গামাটি জেলা শত্রু মুক্ত হওয়ার পর বাংলাদেশের প্রথম জাতীয় পতাকা উত্তোলনের ছবি তিনি ক্যমেরাবন্দী করেন। তিনি ১৯৭১ সালে নিজের জীবন বাজি রেখে পাকিস্তানি হানাদার বহিনী ও তাদের সহযোগী রাজাকারদের হুমকি উপেক্ষা করে মুক্তিযোদ্ধাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে সহায়তা করেছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ পূর্ব বাঙালীর বিভিন্ন আন্দোলন-সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধ চলাকালিন বিরল বেশ কিছু ছবি নিজ ক্যামেরায় বন্দি করেছিলেন আব্দুস সালাম তালুকদার। ১৯৭১ সালে পার্বত্য চট্টগ্রামের বরকল উপজেলায় পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী এবং মিত্র বাহিনীর প্রচন্ড যুদ্ধ সংগঠিত হয়েছিল। ২৭শে নভেম্বর ১৯৭১ সালে বরকল শত্রুমুক্ত হলে তখন মিত্র বাহিনীর তিব্বতি সেনারা বরকল সদর মাঠে সমবেত হয়েছিলেন; কালের সাক্ষী সেই ছবি ক্যামেরায় বন্দী করেছিলেন আব্দুস সালাম তালুকদার। ১৯৭১ সালে মুক্তি যুদ্ধচলাকালীন সময়ে মিত্র বাহিনীর কমান্ডার মেজর জেনারেল এস,এস,উবান পার্বত্য চট্টগ্রাম আগমন করলে শেখ ফজলুল হক মনির উপস্থিতিতে তাকে সহ মুক্তিযোদ্ধাদের যে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়; সে বিরল ছবিটিও তাঁর ক্যামেরায় ধারন করেন আব্দুস সালাম তালুকদার। এছাড়াও স্বাধীন-সার্বভৌম বাংলাদেশের পার্বত্য চট্টগ্রামের রাঙামাটিতে সর্বপ্রথম স্বাধীন বাংলাদেশের পতাকা প্রথম উত্তোলন করা হয়েছিল ১৭ ডিসেম্বর ১৯৭১। সেই ঐতিহাসিক সময়ের ছবিটিও তুলেছেন আব্দুস সালাম তালুকদার। তিনি মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন সময়ে রাঙ্গামটি জেলায় মুক্তিযুদ্ধের সপক্ষের একজন সক্রিয় গূরুত্বপূর্ণ ও ঐতিহাসিক স্বাক্ষী ছিলেন। বিশ্বস্তসূত্রে জানা যায় তাঁর মৃত্যু পরবর্তী অনেক ছবি হারানো গেলেও এখনো তাঁর পরিবারের নিকট কিছু ছবি গচ্ছিত আছে। মহান মুক্তিযুদ্ধে আব্দুস সালাম তালুকদারের ত্যাগ ও স্মরণীয় অবদানের জন্য জাতি তাঁর কাছে চিরকৃতজ্ঞ। নি¤েœ মুক্তিযুদ্ধ ও তার পরবর্তী সময় তাঁর তোলা কয়েকটি দুর্লভ ছবি সংযুক্ত করা হলো

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …