শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / খালেদা জিয়াকে বন্ধী রেখে দেশে কোন তামাশার নির্বাচন হতে দেয়া হবে না–জাফরুল ইসলাম চৌধুরী

খালেদা জিয়াকে বন্ধী রেখে দেশে কোন তামাশার নির্বাচন হতে দেয়া হবে না–জাফরুল ইসলাম চৌধুরী

চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির সভাপতি সাবেক মন্ত্রী আলহাজ্ব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী বলেন তিন বারের সাবেক সফল প্রধান মন্ত্রী বিএনপি চেয়ারপার্সন মাদার অফ ডেমোক্রেসী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া এদেশে কোন তামাশার নির্বাচন হতে দেয়া হবে না। সরকার দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার জনপ্রিয়তায় ঈর্শান্বিত হয়ে কারান্তরিণ করে রেখেছে। তাকে কোন চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে না। আমরা তার সুচিকিৎসা দাবী করছি। অচিরেই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্তি দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন না দিলে যেকোন মূহুর্তে গণবিষ্ফোরনের মাধ্যমে এ আওয়ামী হায়েনা সরকারের পতন গঠন ঘটবে। কারণ আজ হায়েনার কারাগারে শুধু দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়া বন্ধী নন এদেশের ১৬ কোটি মানুষ সরকারের অদৃশ্য কারাগারে বন্ধী। এ বন্ধীদশা হতে মুক্তি পেতে হলে গণআন্দোলনের বিকল্প নেই। জনাব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী গতকাল বুধবার ১২ সেপ্টেম্বর বিএনপির কেন্দ্রঘোষিত প্রতিকী অনশন কর্মসূচীতে সভাপতির বক্তব্যকালে উপরোক্ত বক্তব্য রাখেন। জনাব জাফরুল ইসলাম চৌধুরী চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রতিকী অনশন কর্মসূচি চট্টগ্রাম দক্ষিণের প্রবেশদ্বার শাহ আমানত সেতু চত্বর মান্নান টাওয়ার এর নীচে সকাল ১০টা হতে ঝড় বৃষ্টি উপেক্ষা করে নেতাকর্মীদেরকে নিয়ে এ কর্মসূচি পালন করেন।
এ সময় বক্তব্য রাখেন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা বিএনপির প্রচার সম্পাদক লায়ন নাজমুল মোস্তফা আমিন, সাতকানিয়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক চেয়ারম্যান মুুজিবুর রহমান, বাঁশখালী উপজেলা বিএনপির সহ-সভাপতি সৈয়্যদুল আলম চৌধুরী, জেলা বিএনপির প্রশিক্ষণ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম চৌধুরী, ক্রীড়া সম্পাদক শওকত ওসমান, জেলা সেচ্চাসেবক দলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এডভোকেট মহিউদ্দিন সিকদার, সাধারণ সম্পাদক মনজুর আলম তালুকদার, জেলা যুবদলের সিনিয়র যুগ্ম সম্পদক মোজাম্মেল হক, যুগ্মসম্পাদক হামিদুর রহমান পেয়ারু, জেলা সেচ্চসেবক দলের সহ-সভাপতি আরিফ বিল্লাহ চৌধুরী, সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সালাউদ্দিন সুমন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফৌজুল কবির ফজলু, বিএনপি নেতা সঞ্জয় চক্রবর্তী মানিক, আমির হোসেন, মোহাম্মদ আলী বহদ্দার, বাঁশখালী উপজেলা যুবদলের সাংগঠনিক সম্পাদক রাসেল চৌধুরী, জেলা যুবদল নেতা সরওয়ার কামাল, নুরু মোস্তফা, বাঁশখালী পৌরসভা সেচ্চাসেবক দলের সাধারণ সম্পাদক আবদুল আল মুবিন, জেলা ছাত্রদল নেতা, এনামুল হক, আবদুস সবুর, ইউনুছ, চৌধুরী ওয়াহাব, চৌধুরী খোরশেদ, মোজাম্মেল হোসেন রিজভী, জিহান খালেদ, তৌহিদুল ইসলাম, মামুনুর রশিদ, এম. মনসুর, এনাম, এম আনিসুজজামান, জাহাঙ্গীর আলম, এম আনিস, হেলাল, শাহ রিয়াজ, রবিউল হোসেন হিরু, লোকমান উদ্দিন, শাহাদত হোসেন, নুরুল আবছার ও সিফাতুল ইসলাম স্বেচ্চাসেবক দল নেতা তৈয়্যব, কামাল হোসেন, ফয়সাল আরাফাত প্রমূখ।

পড়ে দেখুন

কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

॥ ডেস্ক রিপোর্ট ॥ অমর একুশে ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষে ঐতিহাসিক ভাষা আন্দোলনের শহীদদের …