শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / আজ ১ মে থেকে তিন মাস কাপ্তাই হ্রদে মৎস্য আহরন ও পরিবহন নিষিদ্ধ

আজ ১ মে থেকে তিন মাস কাপ্তাই হ্রদে মৎস্য আহরন ও পরিবহন নিষিদ্ধ

রাঙ্গামাটির কাপ্তাই হ্রদে মাছের সুষ্ঠু প্রজনন, বংশবৃদ্ধি, মজুদ ও ভারসাম্য রক্ষায় সব ধরনের মাছ আহরণ, বাজারজাত, শুকানো ও পরিবহন আজ বুধবার (৩০ এপ্রিল) থেকে আগামী তিন মাসের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে প্রশাসন। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) রাত ১২টার পর থেকে এ আদেশ কার্যকর করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (২৩ এপ্রিল) রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসক সম্মেলন কক্ষে কাপ্তাই হ্রদের মাছ আহরণ প্রাকৃতিক প্রজনন নিশ্চিতকরণ বিষয়ক সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।
সভায় জেলা প্রশাসক এ কে এম মামুনুর রশিদ বলেন, কাপ্তাই হ্রদে কার্প জাতীয় মাছের প্রাকৃতিক প্রজনন ও বংশ বৃদ্ধিতে হ্রদের সমগ্র এলাকা এবং কাপ্তাই থেকে বাঘাইছড়ি পর্যন্ত কর্ণফুলী নদীর রাঙ্গামাটির সীমানা অন্তর্ভুক্ত অংশে পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত সব ধরনের মাছ আহরণ নিষিদ্ধের সিদ্ধান্ত হয়েছে।
সভায় আরও বলা হয়, ৩০ এপ্রিল রাত ১২টার মধ্যে ধরা মাছ পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে পরিবহন শেষ করতে হবে। নিষেধাজ্ঞা অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে শাস্তি দেওয়া হবে। মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশন, কাপ্তাই হ্রদ মৎস্য উন্নয়ন বিপণন কেন্দ্র, রাঙ্গামাটির সব কর্মকর্তা, সংশ্নিষ্ট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা, জেলা মৎস্য কর্মকর্তা এবং সংশ্নিষ্ট থানার ওসিকে তাৎক্ষণিক আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। নিষিদ্ধ সময়ে জেলার সব বরফ কলও বন্ধ থাকবে।
বাংলাদেশ মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশন (বিএফডিসি) রাঙ্গামাটির ব্যবস্থাপক কমান্ডার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানান, কাপ্তাই হ্রদে তিন মাস মাছ শিকার বন্ধ রাখতে যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। এই তিন মাসে হ্রদ এলাকায় মৎস্য উন্নয়ন করপোরেশন, জেলা প্রশাসন, জেলা পুলিশ, নৌ পুলিশ যৌথভাবে নিয়মিত টহল দেবে। এর মধ্যে অন্য কোনো আদেশ জারি না হলে আগামী ১ আগস্ট থেকে হ্রদ মাছ শিকারের জন্য উন্মুক্ত থাকবে।
উল্লেখ্য, কাপ্তাই হ্রদে কার্প জাতীয় মাছের বংশবৃদ্ধি, হ্রদে অবমুক্ত করা পোনা মাছের বৃদ্ধি, মাছের প্রাকৃতিক প্রজনন নিশ্চিতকরণসহ হ্রদের প্রাকৃতিক পরিবেশ মৎস্য সম্পদ বৃদ্ধির সহায়ক হিসাবে গড়ে তোলার লক্ষ্যে প্রতিবছর কাপ্তাই হ্রদে তিন মাস মাছ শিকার বন্ধ রাখা হয়। হ্রদে মাছ শিকারে নিষেধাজ্ঞাকালীন মৎস্য আহরণের ওপর নির্ভরশীল প্রায় ২০ হাজার জেলেকে বিশেষ ভিজিএফ কার্ডের মাধ্যমে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হবে।

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …