শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির অব্যাহত চাঁদাবাজী ও যাত্রী হয়রানীর প্রতিবাদে রাঙ্গামাটিতে যাত্রীবাহী পাহাড়িকা সার্ভিস বন্ধ

চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির অব্যাহত চাঁদাবাজী ও যাত্রী হয়রানীর প্রতিবাদে রাঙ্গামাটিতে যাত্রীবাহী পাহাড়িকা সার্ভিস বন্ধ

॥ নিজস্ব প্রতিবেদক ॥ চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির অব্যাহত চাঁদাবাজী ও যাত্রী হয়রানীর প্রতিবাদে রাঙ্গামাটিতে যাত্রীবাহী পাহাড়িকা সার্ভিস বন্ধ করে দিয়েছে রাঙ্গামাটি যাত্রী কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ। মঙ্গলবার (৪ ফেব্রুয়ারী) সকাল ১১টা থেকে রাঙ্গামাটি থেকে চট্টগ্রামের উদ্দেশ্যে কোন যাত্রীবাহী পাহাড়িকা সার্ভিসকে ছেড়ে যেতে দেয়নি। রাঙ্গামাটি কাউন্টার বন্ধ করে দিয়ে অবস্থান নেয় যাত্রী কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ। আকষ্মিক এই ঘটনায় দূর্ভোগে পড়েছে রাঙ্গামাটির সাধারণ যাত্রীরা।
রাঙ্গামাটি চট্টগ্রাম সড়কে উন্নতমানের যাত্রী বাহী বাস সার্ভিস চালু এবং রাঙ্গামাটি চট্টগ্রাম সড়কের রাউজানে যাত্রীদের হয়রানি ও লাঞ্ছিত করার দীর্ঘদিন ধরে প্রতিবাদ জানায় রাঙ্গামাটির সাধারণ জনগন। কিন্তু প্রশাসনের পক্ষ থেকে এর কোন ব্যবস্থা গ্রহণ না করা এবং চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির অহেতুক হয়রানী বন্ধ না হওয়ায় এই উদ্যোগ নিয়েছে বলে জানান রাঙ্গামাটি যাত্রী কল্যাণ সমিতির নেতৃবৃন্দ।
আন্দোলনকারীদের নেতৃত্বে থাকা ইমতিয়াজ সিদ্দিকী আসাদ জানিয়েছেন, অন্যতম পর্যটন জেলা রাঙ্গামাটির পরিবহন সেক্টরে নৈরাজ্য সৃষ্টি করে রেখেছে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতি নামক একটি অবৈধ সংগঠন। চট্টগ্রামের রাউজান উপজেলার সংসদ সদস্যের নাম ভাঙিয়ে বছরের পর বছর ধরে রাঙ্গামাটিবাসীকে জিম্মি করে রাখা হয়েছে।
আন্দোলনের নেতৃত্বে থাকা ব্যবসায়ী সমিতির নেতা আনোয়ার মিয়া বানু জানিয়েছেন, রাউজান নির্ভর এই সংগঠনের একক আধিপত্য ও সন্ত্রাসী কর্মকান্ডের কারণে রাঙ্গামাটিতে বিলাসবহুল বাস সার্ভিস চালু করতে পারছে না কোম্পানিগুলো। প্রতিটি বাস কোম্পানির কাছ থেকে ৪ লাখ টাকা করে চাঁদাবাজির ঘোষণা দিয়েছে চট্টগ্রাম মোটর মালিক সমিতির নেতারা।
এ ব্যাপারে চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতি রাঙ্গামাটি অংশের সভাপতি মোঃ মঈন উদ্দিন সেলিম বলেন, চট্টগ্রাম-রাঙ্গামাটি মোটর মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠক করেছিলাম। সেখানে নেতৃবৃন্দদের অব্যাহত চাঁদাবাজি ও যাত্রী হয়রানী বন্ধসহ বিলাস বহুল বাস সার্ভিস চালুর ব্যাপারে জরুরী পদক্ষেপ নিতে জানানো হয়েছিল। কিন্তু তারা এই ব্যাপারে কোন পদক্ষেপ গ্রহন করেনি। তাই আমরা চাই জেলা প্রশাসনের সঙ্গে বসে আলোচনা মাধ্যমে এই সমস্যা দ্রুত সমাধান জরুরী বলে মনে করেন তিনি।
রাঙ্গামাটি চট্টগ্রাম সড়কে উন্নতমানের যাত্রীবাহী বাস সার্ভিস চালু না থাকায় পর্যটন শহর রাঙ্গামাটি তাদের ব্যবসা হারাচ্ছে। উন্নত মানের যাত্রীবাহী বাস সার্ভিস চালু থাকলে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে রাঙ্গামাটিতে আরো বেশী পর্যটকের আগমন ঘটতো বলে মনে করেন রাঙ্গামাটির সর্বস্তরের জনগন।

পড়ে দেখুন

জাফর ওয়াজেদকে চতুর্থবারের মত পিআইবির মহাপরিচালক হিসেবে নিয়োগ প্রদান করায় গিরিদর্পন পরিবারের পক্ষ থেকে শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন

নিজস্ব প্রতিবেদক : সরকার প্রেস ইনস্টিটিউট বাংলাদেশ- পিআইবি’র মহাপরিচালক পদে আরও দুই বছরের জন্য চুক্তিভিত্তিক …