শিরোনাম
প্রচ্ছদ / গণমাধ্যম / চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাজার মনিটরিং

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে বাজার মনিটরিং

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসক ও বিজ্ঞ জেলা ম্যাজিষ্ট্রেট জনাব মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের নির্দেশে বিদেশ ফেরতদের হোম কোয়ারেন্টিনসহ সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা নিশ্চিতকরণ, বাজার মনিটরিং, করোনার প্রাদুর্ভাব সম্পর্কে মাইকিং, অপ্রয়োজনীয় জনসমাগম প্রতিরোধকল্পে সেনাবাহিনী ও পুলিশের সমন্বয়ে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত নগরীর বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা অব্যাহত রেখেছে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসনের ম্যাজিস্ট্রেসী টিম। পৃথক পৃথক অভিযানে মোট ৫১ হাজার টাকা জরিমানা আদায় করা হয়।
আজ ১২ এপ্রিল ২০২০ ইং রোববার নগরীর পাঁচলাইশ, ডবলমুরিং, খুলশী ও চান্দগাঁও এলাকায় সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের কাট্টলী সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলাম। অভিযানকালে এলাকাগুলোতে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রাখা, বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হওয়া ও রিক্সাতে ২/৩ জন যাত্রী নিয়ে চলাচলের অপরাধে মোট ১৩ টি মামলায় ১৩ জন ব্যক্তিকে ৯ হাজার ৫’শ টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়া রোববার সপ্তাহের প্রথম কর্মদিবস হওয়ায় জিইসি মোড় ও আগ্রাবাদ এলাকার বিভিন্ন ব্যাংকে গ্রাহকদের ভীড় ছিল বেশি। ব্যাংকগুলোতে হুড়োহুড়ি না করে যাতে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখা হয় সে লক্ষ্যে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যদের নিয়ে তদারকি করা হয়। নিরাপদ সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে লেনদেন করতে গ্রাহকদের সতর্ক কওে ব্যাংকের ম্যানেজারকে নির্দেশনা দেয়া হয়। এছাড়া ব্যাংকের সামনে যাতে ভীড় না হয় ও লেনদেনের সুবিধার্থে মহিলাদের জন্য আলাদা লাইন করার ব্যাপারেও অবহিত করা হয়। আগ্রাবাদ প্রাইম ব্যাংকের সামনে সামাজিক দুরত্ব বজায় না রেখে লাইনে ভীড় করার অপরাধে মুন্না ইসলাম (২৭) নামে এক গ্রাহককে ১ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।
নগরীর বন্দর, পতেঙ্গা ও ইপিজেড এলাকায় সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের সদর সার্কেলের সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট সুজন চন্দ্র রায়। অভিযান চলাকালে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ব্যবসা পরিচালনার অপরাধে কাটগড় বাজারের প্রতিচ্ছবি ষ্টুডিওকে ২ হাজার টাকা, পতেঙ্গা স্টীল মিল বাজারের এক ভলকেনাইজিং ওয়ার্কশপকে ২ হাজার টাকা, জনতা লাইব্রেরিকে ২ হাজার টাকা, ইপিজেড বাজারের পতেঙ্গা ট্রেডার্স’কে ৫ হাজার টাকা ও শাহীন সু-ষ্টোরকে ৫ হাজার টাকাসহ সর্বমোট ১৬ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাসহ ঘরে অবস্থান করার বিষয়ে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়। পুলিশ ও সেনাবাহিনী অভিযানগুলোতে সহযোগিতা করেন।
নগরীর সদরঘাট, কোতোয়ালী ও ডবলমুরিং বন্দর, এলাকায় সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট এস.এম আলমগীর। এসময় পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় এলাকাগুলোর কাঁচা বাজার পরিদর্শন ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকল্পে নগরবাসীকে মাইকিংয়ের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে সচেতন করা হয়। অভিযানে বিভিন্ন অপরাধে ১ টি মামলায় মোট ৩ হাজার ৭’শ টাকা জরিমানা করা হয়।
নগরীর আকবর শাহ, পাহাড়তলী ও হালিশহর এলাকায় সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট মিজানুর রহমান। অভিযানকালে নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে ব্যবসা পরিচালনার অপরাধে আকবর শাহ ও পাহাড়তলী এলাকার দু’টি রড সিমেন্টের দোকানকে ১৪ হাজার টাকা, অনিয়মের জন্য এক দোকানকে ২ হাজার টাকা, মাস্ক না পরার অপরাধে এক ব্যক্তিকে ১ হাজার টাকাসহ মোট ১৭ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এসময় পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় এলাকাগুলোর কাঁচা বাজার পরিদর্শন, বিনা প্রয়োজনে ঘুরাঘুরি না করা ও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকল্পে নগরবাসীকে মাইকিংয়ের মাধ্যমে ব্যাপকভাবে সচেতন করা হয়। একইসাথেকয়েকটি গার্মেন্টেসের সামনে বকেয়া বেতন-ভাতার জন্য কর্মীরা জড়ো হলে তাদের সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিতসহ মালিক পক্ষকে ফোন কওে এ বিষয়ে কঠোরভাবে সতর্ক করা হয়।
নগরীর চান্দগাঁও, বাকলিয়া ও চকবাজার এলাকায় সকালে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট কাজী তাহমিনা শারমীন। অভিযানকালে বিভিন্ন অপরাধে ৪ টি মামলায় মোট ৮ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এছাড়াও করোনা প্রতিরোধে সচেতনতা সৃষ্টির জন্য সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখাসহ ঘরে অবস্থান করার বিষয়ে মাইকিংয়ের মাধ্যমে প্রচার-প্রচারণা চালানো হয়। পুলিশ ও সেনাবাহিনী অভিযানগুলোতে সহযোগিতা করেন।

পড়ে দেখুন

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভা অনুষ্ঠিত

“চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবেশ রক্ষা” পরিষদের নিয়মিত মাসিক সভায় সম্মানিত সভাপতি আলহাজ¦ আবুল কালাম আজাদ এর …